BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ভারতীয় বোলারদের দাপটে ১৮৩ রানেই শেষ ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস, দিনের শেষে ক্রিজে Rohit-Rahul

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 4, 2021 11:18 pm|    Updated: August 4, 2021 11:35 pm

India vs England: Team India's pacers Shines on first day of first test match | Sangbad Pratidin

ইংল্যান্ড (প্রথম ইনিংস): ৬৫.৪ ওভারে ১৮৩/১০ (রুট ৬৪, বেয়ারস্টো ২৯, বুমরাহ ৪/৪৬, শামি ৩/২৮)
ভারত (প্রথম ইনিংস): ১৩ ওভারে ২১/০ (রাহুল ৯*, রোহিত ৯*)

ইংল্যান্ড এগিয়ে ১৬২ রানে।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের (New Zealand) বিরুদ্ধে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে (World Test Championship Final) তীরে এসেও ডুবেছিল তরী। ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের পাশাপাশি বোলারদেরও সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল। প্রশ্ন উঠেছিল বিরাট কোহলির অধিনায়কত্ব নিয়েও। কিন্তু ইংল্যান্ডের (England) বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে দুরন্ত পারফরম্যান্স করল টিম ইন্ডিয়া (Team India)। ভারতীয় পেসারদের দাপটে মাত্র ১৮৩ রানেই গুটিয়ে গেল রুটদের প্রথম ইনিংস। আর জবাবে ব্যাট করতে নেমে স্টুয়ার্ট ব্রডদের সুইং সামলে দিলেন দুই ভারতীয় ওপেনার কেএল রাহুল (KL Rahul) এবং রোহিত শর্মা (Rohit Sharma)। দিনের শেষে দু’জনেই অপরাজিত থেকে ক্রিজ ছাড়লেন। আর স্কোরবোর্ডে ভারতের রান বিনা উইকেটে ২১। ইংল্যান্ড এগিয়ে ১৬২ রানে।

এদিন দিনের শুরুতেই ভারতীয় দল দেখে অনেকেই চমকে যান। দলের এক নম্বর স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন এবং পেসার ইশান্ত শর্মাকে ছাড়াই দল সাজায় ভারত। চার পেসার হিসেবে জসপ্রীত বুমরাহ, মহম্মদ শামি, শার্দূল ঠাকুর এবং মহম্মদ সিরাজ দলে নেওয়া হয়। যদিও টস হেরে প্রথমে ফিল্ডিং করতে বাধ্য হয় ভারতীয় দল। কিন্তু অধিনায়ক বিরাটের মান রাখেন ভারতীয় পেসাররা। বুমরাহ, শামি-সহ প্রত্যেকেই দুরন্ত বোলিং করেন।

[আরও পড়ুন: Tokyo Olympics: শেষ মুহূর্তে দুরন্ত কামব্যাক, ফাইনালে উঠে রুপো নিশ্চিত কুস্তিগির রবি কুমারের]

দিনের প্রথম ওভারেই ভারতকে উইকেট এনে দেন জসপ্রীত বুমরাহ। তাঁর বলে এলবিডব্লুউ হন রোরি বার্নস (০)। এরপর অবশ্য ডম সিবলি এবং জ্যাক ক্রলি ইনিংসের হাল ধরেন। দু’জনে মিলে ধীরে ধীরে পার্টনারশিপ গড়ার দিকে মন দেন। কিন্তু ব্যক্তিগত ২৭ রান করে সিরাজের বলে আউট হন জ্যাক। এর কিছু পর সিবলিকে ফেরান মহম্মদ শামি। এরপর অবশ্য অধিনায়ক জো রুট এবং জনি বেয়ারস্টো পালটা প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। দু’জনে মিলে চতুর্থ উইকেটে ৭২ রান যোগ করেন। যদিও এর মধ্যে রুটের রানই বেশি ছিল। শেষপর্যন্ত এই জুটি ভাঙেন সেই মহম্মদ শামি। আউট করেন বেয়ারস্টোকে। উলটোদিক থেকে অবশ্য লক্ষ্যে অবিচল ছিলেন জো রুট।

কিন্তু পরবর্তীতে ইংরেজ ব্যাটসম্যানদের কেউই বুমরাহদের সামনে টিকতে পারেননি। রুটও ব্যক্তিগত ৬৪ রানের মাথায় শার্দূলের বলে আউট হয়ে যান। শেষদিকে, স্যাম কুরানের অপরাজিত ২৭ রান না থাকলে ঘরের মাঠে আরও লজ্জায় পড়তে হত ইংরেজদের। এরপর ৬৫.৪ ওভারে ১৮৩ রানেই শেষ হয়ে যায় ইংল্যান্ডের ইনিংস। ভারতীয় বোলারদের মধ্যে বুমরাহ চারটি এবং শামি তিনটি উইকেট নেন। এছাড়া শার্দূল ২টি এবং সিরাজ একটি উইকেট করে পান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দিনের শেষে ভারতের রান বিনা উইকেটে ২১। ক্রিজে রোহিত (৯) এবং রাহুল (৯)। পরিস্থিতি যা দ্বিতীয় দিনের শুরুর এক ঘণ্টা সামলে দিলে ম্যাচে কিছুটা হলেও অ্যাডভান্টেজ পেয়ে যাবে টিম ইন্ডিয়া।

[আরও পড়ুন: Tokyo Olympics: দুর্দান্ত লড়াই করেও মহিলা হকির ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ India, রয়েছে ব্রোঞ্জের আশা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×