৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  রবিবার ১৯ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নির্বাচন ‘১৯

৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  রবিবার ১৯ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একদিন আগে লিগের শেষ ম্যাচ হেরে নিজেদের ‘রিয়েলিটি চেক’। এরপর মঙ্গলবার চেন্নাই সুপার কিংস নামছে প্লে-অফের প্রথম কোয়ালিফায়ার থেকে আইপিএল ফাইনালের টিকিট পাওয়ার লক্ষ্যে।

[আরও পড়ুন: আইপিএলের পর বিশ্বকাপেও অনিশ্চিত হয়ে পড়লেন টিম ইন্ডিয়ার এই ক্রিকেটার]

আইপিএলে এবারই প্রথম প্রতিটা দলই তাদের শেষ হোম ম্যাচ জিতেছে। সিএসকে তার ব্যতিক্রম না হলেও মোহালিতে লিগের শেষ ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের কাছে হারার পর চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি বলেছেন, তাদের টার্গেট ছিল পয়েন্ট টেবলে প্রথম দু’দলের মধ্যে থেকে প্রথম কোয়ালিফায়ার খেলা। কারণ সেই ম্যাচ জিতে সরাসরি যেন ফাইনালে ওঠা যায়। আবার হারলেও আরেকটা সুযোগ পাওয়া যাবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার খেলার। “সেই লক্ষ্যে আমরা সফল। একইসঙ্গে আমাদের রিয়েলিটি চেক-ও হয়ে গিয়েছে শেষ ম্যাচে হারের মাধ্যমে।” বলেছেন সিএসকে সমর্থকদের প্রিয় ‘থালা’।

কী সেই ‘রিয়েলিটি চেক’? উত্তরও ধোনি দিয়েছেন। “পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে শেষ ম্যাচেও আমাদের বোলিং ভাল হয়েছে। তবু আমরা জিততে পারিনি। আসলে গোড়ার দিকে অনেক বেশি রান দিয়ে ফেলেছি। কিন্তু প্লে-অফে ভাল করতে চাইলে সেটা আর করা যাবে না । মোহালির ভুল থেকে সেটা যত তাড়াতাড়ি শিখতে পারি, ততই আমাদের পক্ষে ভাল।”

সিএসকে-র বড় স্বস্তি, মহাগুরুত্বপূর্ণ প্রথম কোয়ালিফায়ার ঘরের মাঠে খেলতে পারছে। চিপকে বরাবর চেন্নাইয়ের রেকর্ড দারুণ। সাতটার মধ্যে ছ’টাতে জয়। কিন্তু ঘরের মাঠে একমাত্র হারটা মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের কাছেই। আজ প্রথম কোয়ালিফায়ারে যারা ধোনিদের প্রতিপক্ষ। আইপিএল ইতিহাসের সবচেয়ে ধারাবাহিক দুই টিমের মেগা প্লে-অফ লড়াই হলেও ফাইনালে ওঠার ক্ষেত্রে রোহিত শর্মার দলের থেকে এগিয়ে মহেন্দ্র সিং ধোনির টিম। যে কারণে এবার লিগে দু’দলের হেড-টু-হেডে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ২-০ তে যতই এগিয়ে মানসিক ভাবে ভাল জায়গায় থাক না কেন, প্লে-অফের বাইশ গজে একবার বল পড়লে লিগের হিসেব কতটা গুরুত্ব পাবে বলা মুশকিল।

[আরও পড়ুন: হিটম্যানের ম্যাজিকে আইপিএল থেকে ভ্যানিশ কেকেআর, প্রশ্নের মুখে কার্তিকের নেতৃত্ব]

তবুও লিগ পর্বের টাটকা পরিসংখ্যান একটা ফ্যাক্টর। যেখানে দেখা যাচ্ছে, মূল লড়াইটা দু’দলের বোলিং লাইন আপের। সিএসকের তিন স্পিনার ইমরান তাহির (২১ উইকেট), হরভজন সিং ও রবীন্দ্র জাডেজা (দু’জনই ১৩ উইকেট) যদি এমআইয়ের কুইন্টন ডি’কক (৪৯২ রান), রোহিত (৩৮৬), হার্দিক পান্ডিয়ার (৩৮০) সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন আজ। তা হলে পালটা গোটা মুম্বই বোলিংয়ের (পেস-স্পিন) সঙ্গে হয়তো আসল লড়াই এমএস ধোনির। ওয়াটসন-ডু’প্লেসি-রায়না-রায়াডু-মুরলী বিজয় সমৃদ্ধ চেন্নাই ব্যাটিং লাইন আপে এবারও হায়েস্ট স্কোরার ধোনি (৩৬৮ রান)।
সব মিলিয়ে তাই গণ ফর্মে থাকা বুমরা (১৭ উইকেট), মালিঙ্গা (১৫), হার্দিক (১৪), তিন পেসারের পাশাপাশি দুই স্পিনার ক্রুণাল (১০ উইকেট), রাহুল চাহারের (১০) জন্য একটু হলেও আজ এগিয়ে মুম্বই। সিএসকে দুর্গ চিপকেও! চেন্নাই চ্যালেঞ্জ প্রসঙ্গে রোহিতও বলছেন,“ এই ম্যাচ থেকে সরাসরি ফাইনালে ওঠার সুযোগ থাকায় লড়াই হাড্ডাহাড্ডি হবে। স্লো-টার্নার পিচের উপযোগী স্পিন আক্রমণ চেন্নাইয়ের আসল শক্তি। তবে আমাদের দলেও ভাল স্পিনার আছে।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং