BREAKING NEWS

৯ মাঘ  ১৪২৮  রবিবার ২৩ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

রয় কৃষ্ণর শেষ মুহূর্তের গোলে ওড়িশাকে হারিয়ে আইএসএলে জয়ের হ্যাটট্রিক এটিকে মোহনবাগানের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: December 3, 2020 9:31 pm|    Updated: December 3, 2020 9:51 pm

‌ISL 2020: ATK Mohunbagan Beats Odisha FC | Sangbad Pratidin

এটিকে মোহনবাগান— ১ (‌রয় কৃষ্ণ)‌
ওড়িশা এফসি—০

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ ‌টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই ফর্মে দল। কিবু ভিকুনার কেরালা ব্লাস্টার্সকে (Kerala Blasters) হারানোর পর ঐতিহ্যের ডার্বিতেও চির–প্রতিদ্বন্দ্বী এসসি ইস্টবেঙ্গলকে (SC East Bengal) ২–০ গোলে হারিয়েছিলেন রয় কৃষ্ণরা (Roy Krishna)। তাই বৃহস্পতিবার ওড়িশা এফসি–র (Odisha FC) বিরুদ্ধে এটিকে মোহনবাগানকেই (ATK Mohunbagan) এগিয়ে রেখেছিলেন বিশেষজ্ঞরা। প্রাক্তন আই লিগ জয়ী কোচ সঞ্জয় সেন বলেই দিয়েছিলেন, এই ম্যাচ থেকে হাবাসের ছেলেরা তিন পয়েন্ট না পেলেই অঘটন ঘটবে। ম্যাচের ৯৪ মিনিট পর্যন্ত আশংকা ছিল সেই অঘটনেরই। কিন্তু ত্রাতা হিসেবে দেখা দিলেন সেই রয় কৃষ্ণ। ম্যাচ শেষের বাঁশি বাজার কিছু আগে গোল করে দলকে কাঙ্খিত তিন পয়েন্ট এনে দিলেন ফিজির তারকা।

এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই ডার্বির দিনের মতোই খেলা শুরু করেছিল এটিকে মোহনবাগান। অর্থাৎ প্রথমদিকে বিপক্ষকে কিছুটা দেখে নিয়ে তারপর আক্রমণ। হলও তাই। প্রথমার্ধের প্রথম কুড়ি মিনিটে ওড়িশাই বারেবারে আক্রমণে যাচ্ছিল। ম্যাচের আট মিনিটেই মার্সিলিনহোকে আটকাতে গিয়ে হলুদ কার্ড দেখেন তিরি। এরপর বেশ কয়েকটি ভাল আক্রমণ তুলে আনেন ওড়িশা এফসির খেলোয়াড়রা। তবে ২৫ মিনিটে তিরির অসাধারণ পাস খুঁজে নেয় রয় কৃষ্ণকে। কিন্তু তাঁর শট বার উঁচিয়ে চলে যায়। তবে ৩৪ মিনিটে ওড়িশার হয়ে দিনের সহজতম সুযোগটি নষ্ট করেন জ্যাকব। এরপর প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগে ফের একবার সুযোগ পেয়েছিলেন রয় কৃষ্ণ। কিন্তু সেই সুযোগ হেলায় হারান তিনি। ফলে প্রথমার্ধের খেলা গোলশূন্যভাবেই শেষ হয়।

[আরও পড়ুন: আইপিএলে নতুন দল থেকে অলিম্পিকে ক্রিকেটের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে আলোচনা হবে বোর্ডের AGM–এ]

দ্বিতীয়ার্ধের চিত্রটাও ছিল একইরকম। আক্রমণ–প্রতি আক্রমণে খেলা হলেও কোনও দলই গোলের মুখ খুলতে পারেনি। সমান সুযোগ পেয়েছিল দু’‌দলের খেলোয়াড়রাই। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতা এবং দুই গোলকিপারের সৌজন্যে গোল হয়নি। দ্বিতীয়ার্ধ জুড়ে একদিকে রয় কৃষ্ণ–ব্র্যাড ইনম্যান এবং অন্যদিকে, মৌরিসিও–মার্সিলিনহো জুটি দু’‌দলের আক্রমণকে নেতৃত্ব দেন। এর মধ্যে যদিও বাতিল হয় এটিকে মোহনবাগানের একটি গোল। শেষপর্যন্ত সবাই যখন ধরে নিয়েছে গোলশূন্যভাবেই শেষ হবে ম্যাচটি, তখনই পরিত্রাতা হিসেবে দেখা দেন রয় কৃষ্ণ। অতিরিক্ত সময়ের একদম শেষ মুহূর্তে ফ্রি–কিককে কাজে লাগিয়ে হেডে দুরন্ত গোল করেন ফিজির তারকা। তারপর আর ম্যাচে ফেরত আসার সময় পায়নি ওড়িশা। তবে তিন পয়েন্ট পেয়ে লিগ তালিকায় শীর্ষে উঠলেও ডেভিড উইলিয়ামস এবং এডু গার্সিয়ার অভাবটা যেন এদিন স্পষ্ট দেখা গিয়েছে এটিকে মোহনবাগানের খেলায়।

 

 

[আরও পড়ুন: এবার হন্যে হয়ে ভাল মানের ভারতীয় ফুটবলার খুঁজছেন এসসি ইস্টবেঙ্গল কোচ ফাউলার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে