×

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

স্টাফ রিপোর্টার: “চ্যাম্পিয়নশিপ ছাড়া অন্য কিছু ভাবছি না। কোন দল কী করল। দেখছিও না।” নাগাড়ে বলে থামলেন ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেজান্দ্রো।

আজ, বৃহস্পতিবার প্রতিপক্ষ নেরোকা। যাদের বিরুদ্ধে জিতে এবারের আই লিগ অভিযান শুরু করেছিল ইস্টবেঙ্গল। সেদিনের নেরোকার সঙ্গে আজকের দলটির মধ্যে অনেক পার্থক্য। বেঙ্গালুরু এফসি ছেড়ে গতবার আই লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা চেঞ্চো এবার নেরোকায়। বেঙ্গালুরুর হয়ে আইএসএলে সেভাবে সুযোগ পাচ্ছেন না বলেই ভুটানিজ স্ট্রাইকার নাম লিখিয়েছেন মণিপুরের দলে। চেঞ্চো আর সুভাষ সিংকে নিয়ে নেরোকার ফরোয়ার্ড লাইন বড় চ্যালেঞ্জ ইস্টবেঙ্গল ডিফেন্সের। শুরুর নেরোকা ধীরে ধীরে দল গুছিয়ে ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে সমান পয়েন্টে দাঁড়িয়ে। যদিও ম্যাচ বেশি খেলে। তাহলে কী চিন্তায় ইস্টবেঙ্গল কোচ? একদমই নয়। বরং আলেজান্দ্রো বেশি আত্মবিশ্বাসী। চার্চিলের পয়েন্ট নষ্ট নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে বলেন, “চ্যাম্পিয়নশিপে থাকা দল অন্যদের নিয়ে ভাবে না। চ্যাম্পিয়ন হতে গেলে সব ম্যাচ জিততে হবে। যদি পারি, তাহলে অন্যদের দিকে তাকাব কেন? আমরা একটা করে ম্যাচ নিয়ে ভাবছি।”

প্র‌্যাকটিস শেষে নিজেদের টিম বাসের দিকে গেলেন কাটসুমি। দাঁড়িয়ে গেলেন ব্রাজিলিয়ান স্টপার এডু। -“দেখুন, আমার ওজন কত কমেছে। কলকাতার ক্লাবগুলির বিরুদ্ধে খেলা হলেই অতিরিক্ত উত্তেজিত হয়ে পড়ি।” কিন্তু আপনাদের তো শুরুতে ইস্টবেঙ্গল হারিয়ে দিয়েছে।-“তখন আমরা গুছিয়ে উঠতে পারিনি। এখন তৈরি। এবার ইস্টবেঙ্গলের কাজটা সহজ হবে না। ফুটবলে আগে থেকে কিছু বলা যায় না। দেখুন না কী হয়।” এডু যতই ম্যাচের আগে ইস্টবেঙ্গলকে সাবধান করুন, আলেজান্দ্রোর উপর খুব একটা প্রভাব পড়েছে বলে মনে হল না। নেরোকা ভাল দল বলে ব্যাপারটা পাশ কাটালেন। বারবার বোঝাতে লাগলেন, বৃহস্পতিবার নেরোকা ম্যাচটা জেতার জন্য কী ভাবে ইস্টবেঙ্গল ফুটবলাররা অপেক্ষা করে রয়েছেন।

[আই লিগ জিতবে ইস্টবেঙ্গলই, আত্মবিশ্বাসী আলেজান্দ্রো]

ইস্টবেঙ্গল কোচের আক্ষেপ অন্য জায়গায়। ৭-১৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ইস্টবেঙ্গলকে চারটে ম্যাচ খেলতে হবে। যা নিয়ে বিরক্ত তিনি। উত্তেজিত হয়ে বললেন, “এটা আই লিগে ভাল ক্রীড়াসূচি নয়। শুধু ব্যবসার কথা ভাবলে হবে না। যারা খেলবে, সেই ফুটবলারদের কথাও ভাবতে হবে। এরকম কম সময়ের মধ্যে বেশি ম্যাচ খেললে সমস্যা ফুটবলারদের।” সেই মরগ্যানের সময় থেকে শুরু হয়েছে। প্র‌তে্যকবার মনে হয়, এবার আই লিগটা তাঁবুতে আসবে। কিন্তু শেষ মুহূর্তে থেমে যেতে হয়েছে। তাহলে কী এবারেও তার পুনরাবৃত্তি? আলেজান্দ্রোকে সেই পুরনো কথা মনে করাতে চাইলে সঙ্গে সঙ্গে ইস্টবেঙ্গল কোচ বললেন, “আগের কথা ভাবছি না। আমরা সামনের ম্যাচটার দিকে ফোকাস রাখছি। কঠোর পরিশ্রম করছি। চ্যাম্পিয়নশিপের কথা ভাবব শেষ দু’ম্যাচ আগে। তখন হিসেব কষা যাবে।”

চুল্লোভাকে দিয়ে ডার্বির দিন সোনি নর্ডিকে বোতলবন্দি করে দিয়েছিলেন আলেজান্দ্রো। এবার কী চেঞ্চো? এড়িয়ে তিনি বললেন, “ডার্বির দিন সোনি নর্ডিকে নিয়ে কোনও পরিকল্পনা ছিল না। এবার চেঞ্চো নিয়েও নেই। আমরা নেরোকাকে নিয়ে ভাবছি।” এরপরেই সগর্বে ঘোষণা, “এই মুহূর্তে সেটপিসে আমরাই সেরা।” চেঞ্চো প্রসঙ্গে কোচকে সমর্থন করে কাশেম বললেন, “ওর সঙ্গে মিনার্ভায় খেলেছি। ওকে থামাতে কোচ আমাদের পরিকল্পনা নেই। আমাদের কাছে অন্য ম্যাচগুলির মতো নেরোকা একটা ম্যাচ।”

[আর কবে খেলবেন জাতীয় দলে? ডার্বির নায়ক জবিকে নিয়ে প্রশ্ন বিজয়নের]

কিন্তু চেঞ্চো কী ভাবছেন? নেরোকার নতুন স্ট্রাইকার বললেন, “ইস্টবেঙ্গলের কাউকে নিয়ে ভাবছি না। আমার মাথায় শুধু ওদের সমর্থকরা। ওরাই ইস্টবেঙ্গলের জন্য স্পেশ্যাল ব্যাপার।”

ছবি: অচিন্ত্য রায়

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং