×

৪ চৈত্র  ১৪২৫  বুধবার ২০ মার্চ ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

স্টাফ রিপোর্টার : প্র‌্যাকটিস তখন শেষ। ফুটবলাররা যে যার মতো ঢুকে পড়েছেন ড্রেসিংরুমে। শুক্রবার প্র‌্যাকটিস শেষ হওয়ার পর কোলাডোকে নিয়ে বসেছিলেন ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেজান্দ্রো। এদিনও তাই হল। তবে রবিবার আলেজান্দ্রোর সঙ্গী কোলাডো নন। মনোজ মহম্মদ আর জবি জাস্টিনকে নিয়ে চলল লম্বা আলোচনা। তার আগে প্র‌্যাকটিসে বাঁদিক থেকে মনোজ মহম্মদকে দিয়ে একের পর এক সেন্টার তুলিয়েছেন আলেজান্দ্রো। সেই সেন্টারে হেড করে চলেছেন জবি। আগের ম্যাচগুলিতে এনরিকেকে কখনও টোনি ডোভাল আর কোলাডোর সঙ্গে খেলাতে পারেননি আলেজান্দ্রো। কারণ বোরহার সঙ্গে জনি অ্যাকোস্টাকে স্টপারে খেলাতে হয়েছে। তাই কখনও টোনি, কখনও কোলাডো খেলেছেন এনরিকের সঙ্গে। সোমবার আইজল ম্যাচটা অন্যভাবে শুরু হচ্ছে। জনি খেলতে পারছেন না কার্ড সমস্যায়। তাই শুরুতে এনরিকে, কোলাডো এবং টোনি। এমন ম্যাচে তিনজন অ্যাটাকিং ফুটবলারকে খেলানোর সুযোগ পাচ্ছেন আলেজান্দ্রো, যেখানে ইসটবেঙ্গলের কাছে সব ম্যাচই নক আউট।

[লজ্জার হার মোহনবাগানের, লিগ জয়ের আরও কাছে চেন্নাই]

সোমবারের ম্যাচ ইস্টবেঙ্গলের কাছে টুর্নামেন্টের প্রি কোয়ার্টার ফাইনাল। রিয়াল কাশ্মীর কোয়ার্টার ফাইনাল। মিনার্ভা সেমি এবং গোকুলাম ফাইনাল। টানা চার ম্যাচে জিতলেও যে চ্যাম্পিয়ন হওয়া যাবে, এমন নিশ্চয়তা নেই। সামনে যে রয়েছে চেন্নাই। ইস্টবেঙ্গল কোচ আবার এসব অঙ্কে যেতে চান না। বললেন, “আমি এখনও বিশ্বাস করি, ওরা শেষ মুহূর্তে পয়েন্ট নষ্ট করবে। আর সে সুযোগ কাজে লাগিয়ে আমরাই চ্যাম্পিয়ন হব।” অবনমনের আওতায় থাকা এই আইজলের কাছে অ্যাওয়ে ম্যাচে হেরেছে ইস্টবেঙ্গল। তারপর লড়াই করে ইস্টবেঙ্গল এখন উঠে এসেছে চ্যাম্পিয়নশিপে। আইজল প্রায় চলে গিয়েছে অবনমনে দোরগোড়ায়। আইজল অবনমনে থাকলে কী হবে, এই ম্যাচটা ইস্টবেঙ্গলের কাছেও কঠিন হতে চলেছে। মানছেন আলেজান্দ্রোও। বললেন, “আইজল অবনমন বাঁচাতে খেলবে। তাই ম্যাচটা সহজ হবে না। আশার কথা, দলের সবাই সুস্থ। ম্যাচটা কঠিন হলেও আমরাই জিতব। এবং জেতার জন্য আমদের ছেলেরা তৈরি। নিজেরা ভুল না করলে ম্যাচ না জিতে মাঠ ছাড়ার কারণ নেই।”
অ্যাওয়ে ম্যাচে আইজলের কাছে হারলেও এখন সেসব মাথায় রাখছেন না ইস্টবেঙ্গল কোচ।

সোমবার জনি অ্যাকোস্টার বদলি হিসেবে অনেকদিন পর মাঠে নামছেন সালাম রঞ্জন সিং। নতুন স্টপার জুটি প্রসঙ্গে ইস্টবেঙ্গল কোচ বললেন, “জনি খেললে কী সুবিধে হত বা না খেললে কী অসুবিধা, এসব নিয়ে মাথা ঘামাতে চাই না। আমার কাছে বিশেষ একজন ফুটবলারের গুরুত্ব নেই। ভাবছি দলের পরিস্থিতি নিয়ে। সেটা ঠিক আছে।” এদিকে আইজলের কোচ স্ট্যানলি রোজারিও একসময়ে লাল-হলুদের দায়িত্বে ছিলেন। অভিজ্ঞতা থেকে তিনি বলছিলেন, “ইস্টবেঙ্গল বড় দল। এই অবস্থায় ওদের বিরুদ্ধে খেলা কঠিন।”

[ লাল-হলুদ জার্সিতে কলকাতা লিগে খেলতে পারেন ধোনি!]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং