BREAKING NEWS

১৪  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ডার্বির রেফারিংয়ে দোষ প্রমাণ হলে ‘ফ্রিজ’ হতে পারেন রেফারি ভেঙ্কটেশ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: December 18, 2018 8:16 pm|    Updated: December 18, 2018 8:16 pm

Mohun Bagan send letter regarding referring

ছবি: অচিন্ত্য রায়

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রবিবার ম্যাচের পর আই লিগ সিইও সুনন্দ ধরকে প্রতিবাদ পত্র পাঠানোর সঙ্গে মোহনবাগান তার কপি পাঠিয়েছিল রেফারিং কমিটির হেড রবিশংকর এবং ফেডারেশন সচিব কুশল দাসকেও। আবার সোমবার ‘সেন্ট্রালাইজড ম্যানেজমেন্ট সিষ্টেমে’ রেফারিজ ফিডব্যাক ফর্ম’ পূরণ করে নিয়ম মেনে ফেডারেশনকে পাঠিয়ে দেয় মোহনবাগান। এবার ডার্বি সংক্রান্ত রেফারির বিষয়টি ফেডারেশনের কোর্টে।

[পাঁচ কোটি টাকায় ব্রেথওয়েটকে তুলে নিল কেকেআর, দল পেলেন না যুবরাজ]

এর আগে ইস্টবেঙ্গল-আইজল ম্যাচেও রেফারি নিশ্চিত গোল বাতিল করেছিল। ইস্টবেঙ্গল প্রতিবাদ জানিয়ে চিঠি দিয়েছিল ফেডারেশনকে। তার উত্তর দেয়নি ফেডারেশন। এবার মোহনবাগানের চিঠির উত্তরও আসবে না। এটাই ধরে নিয়েছেন সবাই। যদি দেখা যায় ডার্বির রেফারি ভেঙ্কটেশ ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তাহলে তা বাগান কর্তাদের চিঠি দিয়ে ফেডারেশনের পক্ষে বলা সম্ভব নয়। তাই রেফারির সিদ্ধান্ত ঠিক হলেও জানানো হয় না। তবে এই চিঠি দেওয়ার পর একটা কাজ হয়েছে। ফেডারেশন কর্তারা বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্তে এসেছেন, অফসাইড না দিয়ে রেফারি ভুল করেননি। তবে বক্সের মধ্যে বোরহা যেভাবে হাত দিয়ে বল থামিয়েছেন, তাতে রেফারি পেনাল্টি দিলেও বলার কিছু থাকত না। বল প্রথমে পায়ে লেগে হাতে লেগেছে, তাই তা পেনাল্টি দেওয়া হবে কি না, তা রেফারির উপর নির্ভর করে। ডিকাকে যেভাবে বক্সের উপর ফেলে দেওয়া হয়েছে, তাও নিশ্চিত ফাউল। সেরকম কিংসলের প্রথম হলুদ কার্ডটিও অন্যায়ভাবে দেখানো হয়েছে। তাই রবিবার ম্যাচের রেফারি ভেঙ্কটেশের রেফারিং কখনওই সমালোচনার উর্দ্ধে নয়। সেই কারণে ফেডারেশনের নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে প্রতিবাদ জানিয়েছে মোহনবাগান।

ঠিক হয়েছে, পুরো বিষয়টি পাঠিয়ে দেওয়া হবে রেফারিজ কমিটির প্রধান রবিশংকরের কাছে। গৌতম করের জায়গায় পাঁচ মাস আগে তিনি প্রধানের চেয়ারে বসেছেন। যদিও রবিবারের ডার্বির রেফারিং নিয়ে তিনি কিছু বলতে চাইলেন না। ম্যাচের ভিডিও দেখবেন রেফারি পোস্টিং কমিটির সদস্যরা। তারপর প্রয়োজন মনে হলে ডাকা হবে বিতর্কিত রেফারি ভেঙ্কটেশকে। যদি দেখা যায়, রেফারির বেশিরভাগ সিদ্ধান্ত ভুল, তাহলে সাময়িক ফ্রিজ করা হবে ভেঙ্কটেশকে। যেভাবে এবারের আই লিগে এখনও পর্যন্ত দু’জন রেফারিকে ফ্রিজ করা হয়েছে।

[টিম ইন্ডিয়ায় ফাটল! মাঠের মধ্যেই ইশান্তের সঙ্গে বচসায় জড়ালেন জাদেজা]

প্রশ্ন উঠেছে, শ্রীকৃষ্ণ থাকতে জুনিয়র রেফারি ভেঙ্কটেশের মুখে কেন বাঁশি? ফেডারেশন কর্তারা বলছেন, ভেঙ্কটেশ ফিফা রেফারি। সিনিয়র রেফারিরা যদি ডার্বি খেলান, তাহলে জুনিয়ররা কবে এই সব ম্যাচ খেলানোর সুযোগ পাবেন? ভেঙ্কটেশ ফিফা রেফারি। তাই তাঁকে ম্যাচ দেওয়ার মধ্যে কোথাও অন্যায় নেই। আর এইভাবে ম্যাচ খেলিয়ে ওরা অভিজ্ঞ হবে। তাই, সব মিলিয়ে ডার্বি শেষ হলেও রেফারিং নিয়ে রেশ কিছুদিন থেকে যাবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে