BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

‘ভারতসেরা মোহনবাগান’, সবুজ-মেরুনের লিগ জয়ে উচ্ছ্বসিত সোনি-ব্যারেটো

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 11, 2020 12:00 pm|    Updated: March 11, 2020 12:00 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মোহনবাগানের আই লিগ জয়ে উচ্ছ্বসিত সবুজ-মেরুনের দুই প্রাক্তনী। একজন হোসে রামিরেজ ব্যারেটো, যাঁর হাত ধরে গোষ্ঠ পাল সরণিতে এসেছিল ন্যাশনাল লিগ। অপরজন, সোনি নর্ডি, কার্যত যাঁর কৃতিত্ব পাঁচ বছর আগে আই লিগ জিতেছিল সবুজ-মেরুন। 

মোহনবাগানের চোখের মণি সোনি। বহু ম্যাচে জয়ের কান্ডারি হিসেবে ধরা দিয়েছেন সবুজ-মেরুন জার্সিতে। বড় ম্যাচে তাঁর স্টেনগানের ভঙ্গিতে সেই সার্জিক্যাল স্ট্রাইক আজও বাগান সমর্থকদের মনে টাটকা। যতই বর্তমানে তিনি অন্য ক্লাবের জার্সি গায়ে খেলুন না কেন, সোনি এখনও সবুজ-মেরুন ভক্তদের কাছের মানুষ। শেষবার মোহনবাগান সোনির (Sony Norde) পায়ে ভর করেই আই লিগ জিতেছিল। সোনি নিজেও বারবার সবুজ-মেরুনের হয়ে গলা ফাটিয়েছেন সুদূর আজারবাইজান-মালয়েশিয়া থেকে। মোহনবাগানের লিগ জয়ের দিন তিনি উচ্ছ্বাস করবেন না, তাই কখনও হয়!

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Champions of India.. congratulations all @mohunbaganac supporters, staff and players… joy Mohun bagan

A post shared by SN10 (@sonynorde) on

[আরও পড়ুন: আই লিগের রং সবুজ-মেরুন, আইজলকে হারিয়ে ফের ভারতসেরা মোহনবাগান]

মঙ্গলবার কল্যাণীতে মোহনবাগানের জয়ের সঙ্গে সঙ্গে ফেসবুকে সবুজ-মেরুন সমর্থকদের শুভেচ্ছা জানান সোনি। পরে ইনস্টাগ্রামেও পোস্ট করেন শুভেচ্ছাবার্তা। তাতে লেখা ছিল, “মোহনবাগানের সব ফুটবলার, সমর্থক, সাপোর্ট স্টাফদের শুভেচ্ছা।” সোনির ওই পোস্টে এক সমর্থক তাঁকে মোহনবাগানে খেলার সময়কার কথা মনে করিয়ে দেন। মনে করিয়ে দেন কীভাবে বাঁ প্রান্ত থেকে তাঁর দৌড়, তাঁর নিখুঁত ফ্রি-কিক মোহনবাগান সমর্থকদের আনন্দ দিত। সেই কমেন্টটিতে রিপ্লাইও করেন সোনি।

MB-Celebration
উচ্ছ্বসিত কোচ কিবু ভিকুনা ও টিম

[আরও পড়ুন: কল্যাণীর মাঠই টনিকের কাজ করেছে, লিগ জয়ের উচ্ছ্বাসে ভেসে জানালেন বাগান কর্তারা]

সোনি একা নন, সমর্থকদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোহনবাগানের সবুজ তোতা ব্যারেটোও(José Ramirez Barreto)। ১১ বছর মোহনবাগানের হয়ে দাপিয়ে খেলেছেন তিনি। একক কৃতিত্বে জিতিয়ে এনেছেন বহু ম্যাচ। তাঁর হাত ধরেই ক্লাবে এসেছে জাতীয় লিগ। ‘শীত-গ্রীষ্ম-বর্ষা ব্যারেটোই ভরসা’, কিংবা ‘যার কেউ নেই, তাঁর ব্যারেটো আছে’, এইসব বুলি একসময় ময়দানের মোহন সমর্থকদের আপ্তবাক্য হয়ে দাঁড়িয়েছিল সেসময়। আই লিগ জয়ের দিনে নস্ট্যালজিক সেই ব্যারেটোও। তিনি বললেন, “মোহনবাগান আবার আই লিগ জিতল। আমি খুবই খুশি। আমি গর্বিত মোহনবাগানের জন্য। গর্বিত সমর্থকদের জন্য, কোচের জন্য, ক্লাব কর্তাদের। ফুটবলাররা যে মানসিকতার পরিচয় দিয়েছে, তার জন্যও আমি গর্বিত।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement