×

২ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ১৮ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

২ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ১৮ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

স্টাফ রিপোর্টার: অনূর্ধ্ব ১৭ ছেলেদের বিশ্বকাপের পর এবার অনূর্ধ্ব ১৭ মেয়েদের বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পেল ভারত। শুক্রবার ফিফা সভাপতি ইনফান্তিনো তা ঘোষণা করে দেন। এক বিবৃতিতে ইনফান্তিনো বলেন, “২০১৭ সালে ছেলেদের অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ ভারতে হয়েছে। শুধু হয়নি, সফল ভাবে তা আয়োজন করেছে ভারত। আমরা আনন্দের সঙ্গে ঘোষণা করছি আগামী ২০২০ সালে মেয়েদের অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ ভারতে হবে। আসা করছি, ভারত এবারও একই রকম ভাবে সাফল্যের সঙ্গে বিশ্বকাপ আয়োজন করবে।”

ছেলেদের পর মেয়েদের অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপে যে ভারতে আসতে পারে, সেই খবর প্রথম ‘সংবাদ প্রতিদিন’-এই প্রকাশিত হয়েছিল। আসলে দু’বছর আগে ছেলেদের অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ সাফল্যের সঙ্গে আয়োজনের পর থেকেই ফিফা ভারতকে নিয়ে রীতিমতো উচ্ছ্বসিত ছিল। কলকাতার যুবভারতী স্টেডিয়ামে যে টুর্নামেন্টের ফাইনালে স্পেনকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ইংল্যান্ড। তখন থেকেই বলাবলি চলছিল, এরপর আর কোনও ফিফা টুর্নামেন্ট ভারত পেতে পারে কি না? আর শুধু অনূর্ধ্ব ১৭ নয়, মেয়েদের অনূর্ধ্ব ২০ বিশ্বকাপ সংগঠনের ক্ষেত্রেও ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন আগ্রহ প্রকাশ করেছে। এক সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ফেডারেশন সচিব কুশল দাস বলেন, “অনূর্ধ্ব ১৭ মেয়েদের বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব দেওয়ার জন্য ফিফাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এর ফলে ভারতে মহিলা ফুটবলের মান আরও বেড়ে যাবে। আমরা মহিলা ফুটবলের উন্নতির কাজে প্রচুর জোর দিয়েছি। প্রবল ভাবে চেষ্টা করছিলাম, যাতে মহিলা ফুটবলের আগের চেয়ে অনেক বেশি জনপ্রিয় করে তোলা যায়। আর ঠিক সেটা ভেবেই এই বিশ্বকাপ করার জন্য বিডও করেছিলাম। ভেবে ভাল লাগছে যে, ফিফা আমাদের সেই সুযোগটা দিয়েছে। বিশ্বকাপ আয়োজনের সুযোগ।”

[মাঠে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি, শাস্তির মুখে পড়তে চলেছেন রোনাল্ডো]

মোট ১৬ দলের এই টুর্নামেন্টে ভারত আয়োজক হিসাবে সরাসরি খেলবে। এখনও পর্যন্ত যা খবর, চার-পাঁচটা ভেন্যুতে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলো হবে। ফেডারেশন সচিব বললেন, “আমাদের ভাবনায় চার-পাঁচটা ভেন্যু রয়েছে। এখনই বলতে পারছি না কোথায় ম্যাচ হবে। দ্রুত সমস্ত কিছু ঠিক করে ফেলব।”

[তদন্তের মুখে মিনার্ভা ফুটবলারদের সঙ্গে ম্যাচ কমিশনার এবং রেফারি]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং