BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

ফ্রান্স সেমিফাইনালে না গেলে চাকরি যেতে পারে দেশঁর, উত্তরসূরি হয়তো জিদান

Published by: Krishanu Mazumder |    Posted: November 14, 2022 10:52 am|    Updated: November 18, 2022 3:07 pm

If France does not go to the semi-finals, Didier Deschamps will lose his job | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্লাব কোচিংয়ে এখন আর দেখা যায় না জিনেদিন জিদানকে (Zinedine Zidane)। ফুটবলবিশ্বের নামী-দামি ক্লাবরা ডাকলেও যান না। কারণ একটাই। ক্লাব ফুটবলের কোচিং আর টানে না জিদানকে। তাঁকে তীব্র আকর্ষণ করে দেশ, নিজের দেশ।

আর সব কিছু ঠিকঠাক চললে, অদূর ভবিষ‌্যতে ফ্রান্সের কোচ হিসেবে দেখা যেতে পারে জিদানকে। ফ্রান্সের বর্তমান কোচ দিদিয়ের দেশঁ (Didier Deschamps) দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় দলের দায়িত্বে। চার বছর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপ দেশঁর কোচিংয়েই জিতেছিল ফ্রান্স (France)। কিন্তু ফরাসি মিডিয়ার খবর অনুযায়ী, দেশঁর উত্তরাধিকার কার হাতে সমর্পণ করা হবে, তা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন ফরাসি ফুটবল কর্তারা। এবং ফরাসি ফুটবল ফেডারেশনের কাছে নাম দেশঁর উত্তরসুরি হিসেব নাম একটাই– জিনেদিন জিদান!

[আরও পড়ুন: ‘কাপ না জিতলে কিন্তু কথা শুনতে হবে নেইমারকে’, অনুজকে বার্তা বিশ্বজয়ী কার্লোসের]

 

ফরাসি ফুটবল ফেডারেশন প্রেসিডেন্ট নোয়েল লে গ্রায়েত ঘোষণা করে দিয়েছেন যে, কাতার বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে যদি ওঠে কিলিয়ান এমবাপে-জিনেদিন জিদানের ফ্রান্স– দেশঁকে জিজ্ঞাসা করা হবে, তিনি কী চান? তিনি কি ফ্রান্স টিমের কোচিং করা চালিয়ে যেতে চান, নাকি চান না? ফরাসি সংবাদপত্র লেকিপকে লে গ্রায়েত বলেছেন, ‘‘আমাদের মধ‌্যে এটা নিয়ে কথা হয়েছে। বিশ্বকাপ শেষে আমরা ভেবে দেখব বিষয়টা। তবে টিম সেমিফাইনাল উঠলে, সেটা দেশঁর ইচ্ছে-অনিচ্ছের উপর নির্ভর করবে। যদি দেশঁ মনে করে, দেশের কোচিং চালিয়ে যাবে, তা হলে কোনও আলোচনাই হবে না। কারণ, দেশঁ সেই জায়গাটা অর্জন করেছে। কিন্তু টিম সেমিফাইনাল না গেলে ভেবে দেখতে হবে। কথা বলতে হবে। তবে তখন আমি কী সিদ্ধান্ত নেব, সেটাই আসল। অর্থাৎ, ফ্রান্স যদি বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল না যেতে পারে, তা হলে দেশঁ থাকবেই তার কোনও মানে নেই।’’

ধরেই রাখা হচ্ছে, দেশঁ বিশ্বকাপ সেমিফাইনাল পর্যন্ত টিমকে না নিয়ে যেতে পারলে জিদানকে পরবর্তী কোচ করে আনা হবে। ফরাসি ফুটবল সংস্থার প্রেসিডেন্ট লে গ্রায়েত বলেছেন, ‘‘আমি দেশঁর সঙ্গে কথা বললাম মাঝে। ওর মধ‌্যে আমি কোনও ক্লান্তি দেখিনি। বরং দেশঁকে দেখে অসম্ভব চার্জর্ড মনে হল। ফ্রান্সের জার্সির প্রতি ওর আবেগটাও একই রকম আছে।’’ তবে ফ্রান্স কোচ যে বিশ্বকাপের আগে দারুণ স্বস্তিতে আছেন, মোটেও বলা যাবে না। বরং যে মাঝমাঠ নিয়ে তিনি কাতার বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছেন, তা দেশঁর দেশেই প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছে। 

[আরও পড়ুন: ‘সবই কর্মফল’, পাকিস্তানের হারের পর শোয়েবের কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে শামির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে