BREAKING NEWS

২১ চৈত্র  ১৪২৬  শনিবার ৪ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

করোনার কোপ! অলিম্পিকের ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তায় আয়োজকরা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: February 15, 2020 10:57 am|    Updated: March 12, 2020 1:01 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের মধ্যেই অলিম্পিকের ভবিষ্যৎ নিয়ে বড়স়ড় আপডেট দিল আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (International Olympic Committee) এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। দুই সংস্থাই জানিয়ে দিয়েছে, চরম প্রতিকূলতা সত্ত্বেও নির্ধারিত সূচি মেনেই অলিম্পিকের আয়োজন করা হবে টোকিওতে। শুক্রবার প্রথম বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং পরে অলিম্পিক কমিটির তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, অলিম্পিক টোকিও থেকে সরিয়ে নেওয়ার কথা এখনও ভাবছে না তাঁরা।

Corona virus
বছরের শুরু থেকে চিনে বড় সংকট হয়ে দেখা দিয়েছে নতুন ধরনের জীবাণু, নোভেল করোনা ভাইরাস। খুব কম সময়ের মধ্যেই তা মহামারির আকার ধারণ করেছে। শেষ খবর অনুযায়ী, করোনা প্রাণ কেড়েছে অন্তত ১৫০০ জনের। শুধু চিন নয়, বিশ্ব জুড়ে তাবড় গবেষকরা নেমে পড়েছেন নোভেল করোনা রুখে দেওয়ার ওষুধ তৈরিতে। কিন্তু, সমাধানসূত্র অধরা এখনও। চিনের গণ্ডি পেরিয়ে এই ভাইরাসের সংক্রমণ বিশ্বের অন্তত ২৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। প্রতিবেশী জাপানেও এর প্রকোপ প্রবল। ইতিমধ্যেই জাপানে করোনার প্রভাবে একজনের মৃত্যু হয়েছে। আশঙ্কাজনক আরও ২ জন। আক্রান্ত কয়েক হাজার মানুষ। উল্লেখ্য, জুলাইয়ের শেষেই টোকিওতে অলিম্পিকের আয়োজন হওয়া কথা। স্বাভাবিকভাবেই, যে দ্রুত হারে করোনার সংক্রমণ ছড়াচ্ছে তাতে অলিম্পিকের আয়োজন নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ঘোড়ার নাম রেখেছেন ‘আজাদ কাশ্মীর’, পাক ঘোড়সওয়ারের কাণ্ডে চূড়ান্ত ক্ষুব্ধ ভারত]

তবে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি জানিয়ে দিয়েছে, টোকিও এখনও পুরোপুরি নিরাপদ। তাই অলিম্পিক সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার বা স্থগিত করে দেওয়ার কোনও প্রশ্নই উঠছে না। তবে, করোনার কারণে আয়োজকদের অতিরিক্ত সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ বছর অলিম্পিকে ২০০ দেশের প্রায় ১১০০ অ্যাথলিট অংশ নেবেন। টোকিও যাওয়ার কথা কয়েক হাজার বিদেশি দর্শকেরও। সেক্ষেত্রে করোনার আতঙ্ক খেলার উপর প্রভাব ফেলবে সন্দেহ নেই।

olympics_web

 

[আরও পড়ুন: হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে অষ্টমবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেন চ্যাম্পিয়ন জকোভিচ]

এ প্রসঙ্গে অলিম্পিক্স সংযোগকারী কমিটির চেয়ারম্যান জন কোট্স বলছেন, “করোনাভাইরাসের জন্য নিয়মিত সকলের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে হচ্ছে। এটা বিশাল কাজ।” একই সঙ্গে তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যে তথ্য দিয়েছে, তার ভিত্তিতে অলিম্পিক হওয়া নিয়ে কোনও সংশয় নেই। তবে, চিন্তা থাকছে চিনের অ্যাথলিটদের নিয়ে। কারণ, চিন থেকেই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক অ্যাথলিট অলিম্পিকে অংশ নেবেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement