২২ চৈত্র  ১৪২৬  রবিবার ৫ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

অধরা শীর্ষস্থান, শেষ মুহূর্তের গোলে হার বাঁচাল এটিকে

Published by: Sulaya Singha |    Posted: February 22, 2020 9:48 pm|    Updated: February 25, 2020 1:38 pm

An Images

বেঙ্গালুরু এফসি: ২ (দিমাস, ফ্রেটার)
এটিকে: ২ (গার্সিয়া, সোসাইরাজ)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পিছিয়ে পড়েও শেষ লগ্নে ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব। শনিবার কান্তিরাভায় সে কথাই প্রমাণ করে দিল এটিকে। খেলার শেষ মিনিটে গার্সিয়ার ফ্রি-কিককে কাজে লাগিয়ে বেঙ্গালুরুর জালে বল জড়িয়ে দলের হার আটকে দিলেন সোসাইরাজ। প্রায় হারতে বসা অ্যাওয়ে ম্যাচ থেকে এক পয়েন্ট তুলে নিয়ে স্বস্তিতে লোপেস হাবাসের দল

ঘরের মাঠে সুনীল ছেত্রীদের বিরুদ্ধে ১-০-য় জয় ছিনিয়ে নিয়েছিল এটিকে। কিন্তু কান্তিরাভা স্টেডিয়ামে শুরুতেই বদলে যায় ছবিটা। আসন্ন এএফসি কাপ দ্বিতীয় লেগ টাইয়ে খেলবে বেঙ্গালুরু। যে কারণে দলের প্রথম সারির ফুটবলারদের বিশ্রামে পাঠিয়েছিলেন কোচ কার্লস। সুনীল ছেত্রী ছাড়াই মোট আটটি বদল এনে দল সাজান তিনি। কিন্তু ভারতীয় স্ট্রাইকারের অনুপস্থিতি সেভাবে অনুভব করতে দেননি দিমাস। ফ্রি-কিক থেকে দলকে এগিয়ে দেন তিনি। ৩৫ মিনিটে ফ্রেটারের গোলে আরও কোণঠাসা হয়ে পড়ে এটিকে। দলে সুনীলের মতো তারকা না থাকার সুযোগ নিতে ব্যর্থ এটিকে। তবে লড়াই ছাড়েননি হাবাসের ছেলেরা। দ্বিতীয়ার্ধে সেট-পিস থেকে গোলের সুযোগ তৈরি হলেও গোলমুখ খুলতে পারছিলেন না কলকাতা দলের স্ট্রাইকাররা। কিন্তু ৮৬ মিনিটে প্রতিপক্ষের ডিফেন্সকে পিছনে ফেলে গোল করতে সফল হন এডু গার্সিয়া। আর দলকে হারের মুখ থেকে বাঁচিয়ে নেন সোসাইরাজের গোল।

[আরও পড়ুন: মধুর প্রতিশোধ, চার্চিলকে উড়িয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়নশিপের দোরগোড়ায় মোহনবাগান]

গত ম্যাচে চেন্নাইয়িন এফসির কাছে ঘরের মাঠে হারতে হয়েছিল এটিকে-কে। তাই প্লে-অফ নিশ্চিত হয়ে গেলেও জয়ে ফিরতে মরিয়া ছিল দল। তবে অ্যাওয়ে ম্যাচ থেকে এক পয়েন্ট আসায় গ্রুপ লিগ শেষে শীর্ষস্থান অধরাই রয়ে গেল হাবাসের। ১৮ ম্যাচে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে ২ নম্বর জায়গাটি ধরে রাখল দল। অন্যদিকে, না জিতলেও তেমন চিন্তিত নয় বেঙ্গালুরু। কারণ প্লে অফে তাদের টিকিটও পাকা হয়ে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: জল্পনায় ইতি টানল BCCI, এশিয়া একাদশে খেলবেন কোহলি-সহ ৪ ক্রিকেটার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement