৪ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২২ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

মোহনবাগান: ১ (শুভ)
রেনবো: ০
সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পিয়ারলেসের ঝুলিতে বর্তমানে যত পয়েন্ট, একটি ম্যাচ বেশি খেলে সেই একই পয়েন্ট ছুঁয়ে ফেলল মোহনবাগান। ফলে নতুন করে লিগ জয়ের আশায় বুক বাঁধছেন বাগান ভক্তরা। যদিও রবিবাসরীয় বিকেলে কল্যাণীতে কিবু ভিকুনার দল যেভাবে জিতল, তাতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার প্রত্যাশা না করাই ভাল। লিগ তালিকার অনেকটাই নিচের দিকে থাকা রেনবোর জালে মাত্র একবারই বল জড়াতে সফল হল সবুজ-মেরুন ব্রিগেড।

[আরও পড়ুন: ট্রেন দুর্ঘটনায় আহত বাগান ভক্তকে অর্থ সাহায্য লেবুতলা পার্ক পুজো কমিটির]

এদিনই প্রথম কল্যাণীতে ফ্লাডলাইটে ঘরোয়া লিগের ম্যাচ হল। সবুজ-মেরুন জার্সি গায়ে খেললেন ড্যানিয়েল সাইরাসও। তবে বাগান ফুটবলারদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ দেখে মনেই হল না, বড় ব্যবধানে জিতে গোল পার্থক্যে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন তাঁরা। গোটা ম্যাচে সেভাবে গোলের সুযোগও তৈরি হল না। প্রথমার্ধে ফ্রানের ক্রস থেকে নাওরেমের হেডার বারের উপর দিয়ে চলে যায়। ফ্রি-কিক থেকে গোলের মুখ খুলতে পারেননি বেইতিয়াও। দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য তাঁর কর্ণার কিককে কাজে লাগিয়েই হেডে কাঙ্খিত গোলটি করেন শুভ ঘোষ। গত ম্যাচে এরিয়ানের বিরুদ্ধে যখন ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়েছিল ভিকুনার দল, তখন এই শুভই একটি গোল করে মানরক্ষার চেষ্টা করেছিলেন। এদিন তাঁর করা একমাত্র গোলেই এল প্রয়োজনীয় তিন পয়েন্ট।

বাগানের এদিনের পারফরম্যান্সে একটা বিষয় স্পষ্ট। প্রতিটি ম্যাচে এখন যেনতেন প্রকারে তিন পয়েন্ট পাওয়াই লক্ষ্য দলের। তা সে পারফরম্যান্স যা-ই হোক না কেন। আট ম্যাচে মোহনবাগানের সংগ্রহ ১৪ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলে ১৩ পয়েন্ট ইস্টবেঙ্গলের। এমন পরিস্থিতিতে পিয়ারলেস পয়েন্ট নষ্ট করলেই একমাত্র চ্যাম্পিয়নশিপের দৌড়ে টিকে থাকার আশা জিইয়ে থাকবে গঙ্গাপারের ক্লাবের। বাগানের পরের ম্যাচ মহামেডানের বিরুদ্ধে। যুবভারতীতে মিনি ডার্বির পরই অনেকখানি স্পষ্ট হয়ে যাবে লিগের ভবিষ্যৎ।

[আরও পড়ুন: কেন ধোনিকে নিয়ে আবেগঘন পোস্ট করেছিলেন? অবশেষে মুখ খুললেন কোহলি]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং