২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের হুমকিতেই নাকি পাকিস্তানে খেলতে আসতে চাইছেন না মালিঙ্গারা। এমনই আজব অভিযোগ তুলেছিলেন পাক মন্ত্রী। ইমরান সরকারের বিজ্ঞান মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরির অদ্ভুত যুক্তির কড়া জবাব দিল শ্রীলঙ্কা।

[আরও পড়ুন: ‘ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের নোংরামি জীবনে ভুলব না’, অভব্য আচরণে ব্যথিত ক্রোমা]

ফাওয়াদের যুক্তি, পাকিস্তানে খেলতে এলে আইপিএল থেকে বাদ পড়তে পারেন শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটাররা। তাই সে দেশে খেলতে যেতে চাইছেন না মালিঙ্গারা। এই কারণটি লুকিয়ে নিরাপত্তার কারণ দেখানো হচ্ছে। প্রসঙ্গত, পাকিস্তান সফরের আগেই দল থেকে সরে দাঁড়ান লাসিথ মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ-সহ প্রথম সারির ১০ জন শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার। আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর পাক সফরের জন্য করাচিতে পৌঁছনোর কথা শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের। ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত তিনটি ওয়ানডে এবং তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে তারা। কিন্তু তার আগে নিরাপত্তার প্রশ্নে অথৈ জলে সফরের ভবিষ্যৎ। আর এতেই চটেছে পাক প্রশাসন। যার জেরে এমন বিবেচনাহীন মন্তব্য করে নেটদুনিয়ায় হাসির খোরাক হয়েছেন পাক মন্ত্রী। তাঁর মন্তব্যেরই এবার পালটা দিল শ্রীলঙ্কা। সে দেশের ক্রীড়ামন্ত্রী হারিন ফার্নান্দো জানান, ভারতের উসকানিতেই যে পাকিস্তানে যাবে না শ্রীলঙ্কা, এমন তথ্যের কোনও ভিত্তি নেই। বলেন, “২০০৯ সালের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই অনেক ক্রিকেটার সেখানে যেতে চাইছেন না। তাঁদের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই। যাঁদের যেতে আপত্তি নেই, তাঁদের নিয়েই দল তৈরি করা হয়েছে।” এর সঙ্গে যে আইপিএলে সুযোগ পাওয়ার কোনও সম্পর্ক নেই, সেকথাও স্পষ্ট করে দেন তিনি।

[আরও পড়ুন: জঙ্গি হানার স্মৃতি টাটকা, পাকিস্তান সফরে যেতে নারাজ মালিঙ্গা-ম্যাথিউজরা]

২০০৯ সালে পাক সফরে গিয়ে জঙ্গি হামলার মুখে পড়তে হয়েছিল শ্রীলঙ্কার টিম বাসকে। লাহোরে সন্ত্রাস হানায় আহত হয়েছিলেন দলের ছ’জন ক্রিকেটার। তারপর থেকেই সে দেশে ক্রিকেটীয় সফর বন্ধ করে দিয়েছিল সমস্ত দেশ। সাম্প্রতিক অতীতে জিম্বাবোয়ে পাকিস্তানে খেলতে গিয়েছিল। এবার মালিঙ্গারা বেঁকে বসায় শ্রীলঙ্কা সফর নিয়েও ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। প্রথম শ্রেণির তারকারা না থাকায় সিরিজ হলেও তার গুরুত্ব যে অনেকটাই কমে যাবে, তা বলাই বাহুল্য।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং