১ মাঘ  ১৪২৫  বুধবার ১৬ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

তনুময় ঘোষাল: নিজের লক্ষ্যে অবিচল থেকে ষষ্ঠ আগ্নেয়গিরির চূড়ায় উঠে বিশ্বরেকর্ডের দোরগোড়ায় এভারেস্টজয়ী পর্বতোরোহী সত্যরূপ সিদ্ধান্ত। ইতিহাস তৈরির থেকে আর মাত্র একধাপ দূরে বাংলার পর্বতারোহী। বিশ্বের সাতটি সর্বোচ্চ আগ্নেয়গিরি জয় করে নজির গড়বেন তিনি। আর সেই লক্ষ্যেই এবার সপ্তম আগ্নেয়গিরির চূড়া ছুঁতে পাড়ি দিচ্ছেন সান্টিয়াগো।

[মাস্টারহীন মাস্টার ব্লাস্টার, প্রয়াত রমাকান্ত আচরেকর]

বুধবার শহরে আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁকে অগ্রিম শুভেচ্ছা জানালেন সত্যরূপের স্কুলের বন্ধু এবং তাঁর সহকর্মীরা। হাজির ছিলেন সংগীত পরিচালক অনুপম রায়, এভারেস্ট জয়ী পবর্তারোহী দেবাশিস বিশ্বাস এবং বসন্ত সিংহ রায়। ছিলেন সাঁতারু বুলা চৌধুরিও। প্রত্যেকেই সত্যরূপকে তাঁর অভিযানের জন্য শুভ কামনা জানিয়ে তাঁর হাতে জাতীয় পতাকা তুলে দেন। এবার তাঁর লক্ষ্য মাউন্ট সিডলে। এটি আন্টার্টিকার সর্বোচ্চ আগ্নেয়গিরি। বৃহস্পতিবার ভোরেই সেই উদ্দেশে রওনা দেবেন তিনি। সান্টিয়াগো থেকে ক্রমেই এগিয়ে যাবেন দুর্গম পাহাড়ি পথ ধরে। শহর ছাড়ার আগে আত্মবিশ্বাসের সুর পর্বতারোহীর গলায়। ছ’বার সফল হয়েছিলেন, এবারও হবেন। সঙ্গে জানান, ১৬ থেকে ১৯ জানুয়ারির মধ্যেই সামিট শেষ করার ইচ্ছা তাঁর। তবে আবহাওয়া বুঝেই এগোবেন। আর সিডলে জয় করলেই গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম লেখাবেন সত্যরূপ।

[সিডনি টেস্টের দল ঘোষণা, চোটের জন্য চিন্তার ভাঁজ ভারতীয় শিবিরে]

সাত মহাদেশের সাতটি সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয় করে আগেই বিশ্বের দরবারে বাঙালির মুখ উজ্জ্বল করেছিলেন৷ কিন্তু এখানেই থমকে যেতে চাননি সত্যরূপ সিদ্ধান্ত৷ আরও বড় কিছুর উদ্দেশ্যে সাতটি মহাদেশের সাতটি আগ্নেয়গিরি জয়ের লক্ষ্যে বেরিয়ে পড়েছিলেন৷ সম্প্রতি তিনি জয় করেন মেক্সিকোর সর্বোচ্চ আগ্নেয়গিরি পিকো দে ওরিজাবা। এই সক্রিয় আগ্নেয়গিরি উত্তর আমেরিকার তৃতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ। তবে আগ্নেয়গিরি জয় করলেও দুর্ঘটনার সম্মুখীন হতে হয়েছিল তাঁকে। বড়সড় বিপর্যয় থেকে বেঁচে গিয়েছিলেন। যদিও অতীত ঘাঁটতে নারাজ তিনি। এখন বিশ্বরেকর্ডই পাখির চোখ এই রোমাঞ্চপ্রিয় বাঙালির।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং