২৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শনিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাইক্লোন ‘মহা’ নয়। বৃহস্পতিবার রাজকোট সাক্ষী রইল হিটম্যানের তাণ্ডবের। কার্যত একাহাতেই দলকে মূল্যবান জয় এনে দিলেন ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা। বাংলাদেশের ইনিংসে ভারতীয় দলের ক্রিকেটাররা যে সমস্ত ভুল-ত্রুটি করেছিলেন, ভারতের জয়ের সঙ্গে সঙ্গে সেসবেও প্রলেপ পড়ল। কিন্তু ক্রিকেটপ্রেমীরা তো এত সহজে ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নয়। ঋষভ পন্থের জঘন্য কিপিং হোক বা খালিল আহমেদের লজ্জার বোলিং- কোনওকিছুই চোখ এড়াচ্ছে না তাদের। ফলে টিম ইন্ডিয়া জিতলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে তরুণদের।

মুশফিকুর রহিমদের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে লজ্জার হারের পর কাঠগড়ায় তোলা হয়েছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির উত্তরসূরি ঋষভকেই। প্রথমত পন্থের ব্যাটিং নিয়ে সন্তুষ্ট ছিলেন না ভারতীয় সমর্থকরা। তার উপর উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে একের পর এক ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। এবার ক্রিকেট সম্পর্কে তাঁর প্রাথমিক জ্ঞান নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন নেটিজেনরা।

[আরও পড়ুন: শততম ম্যাচে নয়া রেকর্ড রোহিতের, দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে সহজ জয় ভারতের]

প্রথমে ব্যাট করে দুর্দান্ত ৬০ রানের পার্টনারশিপ গড়েন দুই বাংলাদেশি ওপেনার লিটন দাস এবং মহম্মদ নঈম। ভারতীয় বোলারদের রীতিমতো ঘাম ঝড়িয়ে দেন তাঁরা। যুজবেন্দ্র চাহালের বলে লিটন দাসকে স্টাম্প আউট করলেন ঋষভ। কিন্তু থার্ড আম্পায়ার জানালেন লিটন নট-আউট। কারণ বলটি ধরার সময় উইকেট থেকে ঋষভের হাত এগিয়ে ছিল। নিয়ম অনুযায়ী, স্টাম্প আউট করার সময় হাত উইকেটের পিছনে থাকতে হবে। উলটে বলটিকে নো বল ঘোষণা করা হল। নেটিজেনরা তাই বলতে শুরু করেছেন, ক্রিকেট নিয়ে ঋষভের এতটুকু পড়াশোনাও নেই। অনেকেই দাবি তুলেছেন, এবার ঋষভকে ধোনির উত্তরসূরি বলাটা বন্ধ হোক। তাঁর সঙ্গে কোনওভাবেই ধোনির তুলনা চলে না। সোশ্যাল মিডিয়ায় এনিয়ে মজার মজার মিমও তৈরি হয়ে গিয়েছে।

তবে শুধু ঋষভই নয়, ক্রিকেটপ্রেমীদের কটাক্ষের মুখে পড়েছেন খালিল আহমেদও। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভারতের প্রথম দলের জশপ্রীত বুমরাহ-মহম্মদ শামির মতো তারকারা নেই। এমন পরিস্থিতিতে খালিল-দীপক চাহারদের অনেক বেশি দায়িত্ববান হওয়া জরুরি ছিল। কিন্তু তার ছিটেফোঁটাও দেখা গেল না তাঁদের মধ্যে। র‍্যাঙ্কিংয়ে ন’নম্বরে থাকা বাংলাদেশ দলের কাছে পরপর সাতটি বাউন্ডারি হজম করলেন খালিল। দিল্লির থেকেও রাজকোটে খারাপ পারফরম্যান্স তাঁর। অনেকেই তাঁকে দল থেকে বাদ দেওয়া নিয়ে সুর চড়িয়েছেন। তবে প্রশ্ন হল, এত সমালোচনার পর কি ঋষভ-খালিলদের বোধোদয় হবে?

[আরও পড়ুন: ফের ভারতীয় ক্রিকেটে গড়াপেটার ছায়া, ফিক্সিংয়ের অভিযোগে গ্রেপ্তার ২ ক্রিকেটার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং