১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৪ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মেলবোর্নে ইতিহাস, ৩৭ বছর পর অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বিরাট জয় ভারতের

Published by: Sulaya Singha |    Posted: December 30, 2018 8:42 am|    Updated: December 30, 2018 8:54 am

Team India beats Australia

ভারত: ৪৪৩/৭ ডিক্লেয়ার্ড (পূজারা- ১০৬) এবং ১০৬/৮ ডিক্লেয়ার্ড (ময়ঙ্ক-৪২)
অস্ট্রেলিয়া: ১৫১ (খাওয়াজা-২১) এবং ২৬১ (মার্শ-৪৪)

১৩৭ রানে জয়ী ভারত

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বছরটা ১৯৮১। মেলবোর্নে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন কপিল দেব, গুন্ডাপ্পা বিশ্বনাথ, সুনীল গাভাসকররা। অ্যালান বর্ডার, গ্রেগ চ্যাপেলের অস্ট্রেলিয়াকে ৫৯ রানে হারিয়ে ইতিহাস গড়েছিল ভারত।

কাট টু ২০১৮। বক্সিং ডে টেস্টে টিম ইন্ডিয়াকে লক্ষ্য করে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডের গ্যালারি থেকে উড়ে আসছে গালিগালাজ, বর্ণবিদ্বেষমূলক মন্তব্য।ল মাঠের মধ্যে চলছে স্লেজিং। সেসবকে উপেক্ষা করে টিম পেইনের অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে দিল বিরাট কোহলির টিম ইন্ডিয়া। ৩৭ বছর পর এমসিজি-তে ফিরল সেই সুখের স্মৃতি। কোহলির নেতৃত্বে আরও একবার ডনের দেশে তৈরি হল ইতিহাস।

[মেলবোর্নে অভিনব নজির গড়লেন তিন পেসার বুমরাহ-ইশান্ত-শামি]

টেস্টের চতুর্থ দিনই যেন ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারিত হয়ে গিয়েছিল। ইতিহাস তৈরি থেকে মাত্র দুধাপ দূরে ছিল ভারত। এদিন খেলা শুরু হতেই এল প্রত্যাশিত জয়। যদিও বৃষ্টিই ছিল একমাত্র চিন্তার বিষয়। এবং হোম ফেভরিটদের মান বাঁচাতে সে হাজিরও হয়েছিল মাঠে। যার ফলে ম্যাচ শুরু হতেও খানিকটা দেরি হয়। তবে সফরকারী দলকে দমানো যায়নি। বুমরাহ-ইশান্ত জোড়া উইকেট তুলে নিতেই তেরঙ্গায় রঙিন হয়ে ওঠে ক্যাঙারুর দেশ। দ্বিতীয় ইনিংসে বুমরাহ ও জাদেজা তিনটি করে উইকেট তুলে নেন। ইশান্ত ও শামি দুটি করে উইকেট ঝুলিতে ভরেন। সব সমালোচনা, সব বিতর্ক, সব কটাক্ষের জবাব অজিবাহিনীকে ১৩৭ রানে হারিয়েই দিয়ে দিলেন বিরাটরা। আর সেই সঙ্গে চার টেস্টের সিরিজে ২-১-এ এগিয়ে গেল ভারত।

নজির গড়ে আত্মবিশ্বাসী ক্যাপ্টেন কোহলি বলছেন, “এই জয়ে একেবারেই অবাক হইনি। আমরা জানতামই জিতব। ভাল খেললে ভাল ফল তো হবেই। এই ছন্দটাই ধরে রাখতে চাই।” তবে এ জয়ের আসল নায়ক যে ভারতীয় বোলাররাই, তাও নির্দ্বিধায় মেনে নিচ্ছেন অধিনায়ক। বলছেন, বোলারদের জন্যই এই জয়টা বেশি করে স্পেশ্যাল। তবে প্রথম ইনিংসে পূজারা, ময়ঙ্ক এবং কোহলি দুর্দান্ত ব্যাটিং না করলে অস্ট্রেলিয়াকে হারানো সহজ হত না। তাই দিনের শেষে বলা যেতেই পারে দলগত দক্ষতাতেই এল জয়। আর এই জয়ের মধ্যে দিয়েই অসামান্য ব্যাটসম্যানের পাশাপাশি নিজেকে যোগ্য অধিনায়ক হিসেবেও মেলে ধরলেন কোহলি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে