১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  সোমবার ২৭ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পূর্ব ও মধ্য কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকায় কাজ করছে না রিলায়েন্স জিও-র 4G নেটওয়ার্ক। এমনটাই অভিযোগ গ্রাহকদের। মাইক্রো ব্লগিং সাইট ও সোশ্যাল নেটওয়ার্কে এই জাতীয় অভিযোগের বন্যা বয়ে যাচ্ছে। শুধু আজ নয়, গত ৪৮ ঘণ্টা ধরেই ইন্টারনেট পরিষেবা নিয়ে ক্ষোভ জমেছে শহরবাসীর মনে।

জিও-র অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল ‘জিও কেয়ার’-এ এই নিয়ে গুচ্ছের অভিযোগ জমা পড়ছে। ভয়েস কল নয়, নির্দিষ্টভাবে 4G ইন্টারনেট পরিষেবা নিয়েই উঠছে সবচেয়ে বেশি অভিযোগ। তবে বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারি হওয়ায় অনেকে ভেবেছেন, সাধারণতন্ত্র দিবসে ডেটা দেওয়া নেওয়া বেশি হয়েছে বলে ইন্টারনেট পরিষেবা ‘স্লো’ হতে পারে। কিন্তু রাত পোহালেও পরিস্থিতি না পালটানোয় অগত্যা কাস্টমার কেয়ারের দ্বারস্থ হয়েছেন বহু ইউজার। লোকের মুখে মুখে, অফিসে অফিসে একটাই আলোচনা। ‘জিও-র ইন্টারনেট কি কাজ করছে?’ সাধারণতন্ত্র দিবসে হোয়াটসঅ্যাপ-মেসেঞ্জারে মেসেজ পাঠাতে গিয়ে ক্ষান্ত হতে হয়েছে অনেককে।

[সাধারণতন্ত্র দিবসের অফার, সস্তায় আরও বেশি 4G ডেটা দেবে Reliance Jio]

কেউ কেউ ‘ইন্টারনেট স্পিড’ টেস্ট করে তার ছবিও পোস্ট করেছেন টুইটার-ফেসবুকে। এরকমই এক ইউজার জ্যোতি রঞ্জন লিখছেন, ‘মধ্য কলকাতায় জিও-র ইন্টারনেট পরিষেবা খুবই স্লো। কাজ করছে না বললেই চলে। এরকম পরিষেবা আশা করিনি।’ জিও কেয়ার থেকে এই যাবতীয় অভিযোগের জবাবে গ্রাহকদের নির্দিষ্ট লোকেশন ও নম্বর চাওয়া হচ্ছে। কিন্তু সে সব দিয়েও কোনও সমাধান হচ্ছে না বলেও অভিযোগ উঠেছে। কেউ বিরক্ত, কেউ আবার প্রকাশ্যেই অন্য নেটওয়ার্কে চলে যাওয়ার হুমকি দিচ্ছেন। অনেকে যুক্তি দিচ্ছে, জিও-র ‘হানিমুন পিরিয়ড’ কেটে গিয়েছে। এয়ারটেল, ভোডাফোনের মতো নেটওয়ার্ক এখন প্রায় জিও-র দামেই ডেটা প্যাক দিচ্ছে। তাই এভাবে পরিষেবা দিলে তাঁরা অন্য নেটওয়ার্কে চলে যেতে বাধ্য হবেন।

কী বলছেন এ শহরে জিও-র কর্মকর্তারা? জিও-র এক মুখপাত্র কার্যত এই সমস্যার কথা মেনে নিয়েছেন। জানালেন, রাসবিহারী থেকে এমনই বেশ কিছু অভিযোগ তাঁর কাছেও এসেছে। কিন্তু এখনই তিনি এর বাইরে কিছুই বলতে পারবেন না। ই-মেলে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই মুখপাত্র জানিয়েছেন, সংস্থার টেকনিক্যাল টিমকে ওই মেল ফরোয়ার্ড করা হয়েছে।

ঠিক কী কী সমস্যা হচ্ছে?

[সস্তায় ফোনের পর এবার কি দেশে বিকল্প মুদ্রা আনছে রিলায়েন্স?]

গ্রাহকদের একাংশ বলছেন, জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট যেমন ফেসবুক অ্যাকসেস করা যাচ্ছে না। দেখা যাচ্ছে না কোনও ভিডিও বা ছবি। অথচ, ডেটা কানেকশন ‘অন’ রয়েছে। ভয়েস কল কিন্তু ঠিকঠাকই হচ্ছে। মূল অভিযোগ ডেটা নিয়ে। জিও বারবার নিজেদের ফোর-জি স্পিডকে সেরা বলে দাবি করলেও এক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে এয়ারটেল বা ভোডাফোন কিন্তু বেশি স্পিড দিচ্ছে। অথচ, সাধারণতন্ত্র দিবসকে টার্গেট করে জিও তাদের ডেটা প্যাকগুলিকে ঢেলে সাজিয়েছে। রিপাবলিক ডে অফারের আওতায় যাঁরা দৈনিক যথাক্রমে ১ ও ১.৫ জিবি করে ডেটা পেতেন, তাঁরাই ২৬ জানুয়ারির পর থেকে ১.৫ জিবি ও ২ জিবি করে ডেটা পাবেন। অর্থাৎ, পাওয়া ৫০% বেশি ডেটা পাওয়ার কথা। সেই সঙ্গে প্রতিটি প্যাকের দাম কমেছে ৫০ টাকা করে। ২৬ জানুয়ারি থেকে জিও-র প্ল্যান পাওয়া যাচ্ছে ১৪৯, ৩৪৯, ৩৯৯ ও ৪৪৯ টাকায়। এই প্যাকগুলির ভ্যালিডিটি ২৮, ৭০, ৮৪, ৯১ দিন। এই প্রতিটি প্ল্যানে এখন একের বদলে দেড় জিবি করে ফোর-জি ডেটা পাওয়া যাবে।

একনজরে দেখে নিন জিও-র নতুন রিচার্জ প্যাকের তালিকা:

jio data un edited

[Jio-কে টেক্কা দিতে দৈনিক ৩.৫ জিবি ডেটা প্ল্যান আনল Airtel]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং