১ আশ্বিন  ১৪২৫  মঙ্গলবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  |  পুজোর বাকি আর ২৮ দিন

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্মার্টফোনে রয়েছে, অথচ হোয়াটসঅ্যাপ নেই- এমনটা ভাবাই যায় না আজকাল। জনপ্রিয় এই মেসেজিং অ্যাপ প্রতিদিন কোটি কোটি মেসেজ, ছবি ও ভিডিও আদানপ্রদান হয় এ দেশে। প্রায় সকলেরই হোয়াটসঅ্যাপে স্কুলের বন্ধুদের, অফিস কলিগদের জন্য আলাদা আলাদা গ্রুপ থাকে। সেই গ্রুপে দিনরাত মেসেজ দেওয়া-নেওয়া হয়। কিন্তু এই প্রবণতার মধ্যেই যে কী মারাত্মক বিপদ লুকিয়ে আছে, সেটা এতদিন জানা ছিল না। এই গ্রুপ চ্যাটই আপনার স্মার্টফোনের অন্দরমহলের দরজা হাট করে খুলে দিতে পারে হ্যাকারদের কাছে। এমন আশঙ্কার কথাই সম্প্রতি প্রকাশ্যে এনেছে Wired-এর একটি রিপোর্ট।

[WhatsApp-এর আপত্তিজনক ফটো বা ভিডিও কীভাবে লুকিয়ে রাখবেন?]

রিপোর্টে বলা হয়েছে, জার্মান ক্রিপ্টোগ্রাফারসরা তাঁদের নয়া গবেষণায় জানতে পেরেছেন, হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাটের আসল নিয়ন্ত্রণ মোটেও গ্রুপের অ্যাডমিনদের হাতে থাকে না। থাকে হোয়াটসঅ্যাপ সার্ভার যে বা যিনি চালাচ্ছেন, তাঁর বা তাঁদের হাতে। তিনি চাইলেই, একটি প্রাইভেট চ্যাটে যত খুশি সদস্যকে ডেকে আনতে পারেন। তার জন্য গ্রুপটির অ্যাডমিনের অনুমতিরও দরকার পড়বে না। এক্ষেত্রে হোয়াটসঅ্যাপের ‘এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন’ প্রযুক্তি কোনও কাজেই লাগবে না বলে দাবি করেছেন গবেষকরা। আপনার ব্যক্তিগত চ্যাট পড়তে পারবেন যে কেউ। বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলছেন, ‘এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন’ প্রযুক্তি যদি গ্রুপ চ্যাট ও টু পার্টি চ্যাট- দুই ক্ষেত্রেই সমানভাবে কাজ করত, তাহলে অ্যাডমিনের অনুমতি ছাড়া গ্রুপে কাউকে যুক্ত করা যেত না। কিন্তু এক্ষত্রে যায়। তাহলে কোথায় কাজে এল ‘এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন’ প্রযুক্তি, প্রশ্ন তুলছেন সমালোচকরা।

[আপডেটেড WhatsApp ডাউনলোড করেছেন? জানেন কী সর্বনাশ হতে পারে?]

রিপোর্টটি আরও বলছে, আদতে এটি একটি প্রযুক্তিগত খামতি। যাকে বলে ‘বাগ’। এক্ষেত্রে যিনি সার্ভারটি নিয়ন্ত্রণ করছেন, তিনি গ্রপ অ্যাডমিনের অনুমতি ছাড়াই কাউকে ইনভিটেশন লিঙ্ক পাঠাতে পারেন। কোনও অথেনটিকেশনের প্রয়োজন পড়ে না। ২০১৬-তে অতিরিক্ত নিরাপত্তার জন্য ‘এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন’ প্রযুক্তি নিয়েও এলেও পরে বহুবার অ্যাপটির সমালোচনা হয়েছে। যার মোকাবিলায় সম্প্রতি বেশ কতগুলি নয়া ফিচার নিয়ে এসেছে হোয়াটসঅ্যাপ। আপডেটেড বেটা ভার্সনে যোগ হয়েছে লাইভ লোকেশন ফিচার। পাশাপাশি, কোনও হোয়াটসঅ্যাপ ইউজার ফোন নম্বর পালটালে তাঁর ফোনের কন্ট্যাক্ট লিস্টে থাকা সমস্ত ইউজারদের কাছে নোটিফিকেশন চলে যাবে। যার অর্থ হল, এখন থেকে ফোন নম্বর পালটালেও প্রত্যেককে আপনার নতুন নম্বর ফোন করে জানাতে হবে না। তবে আপনি নিজের নতুন নম্বর কাউকে জানাতে না চাইলে নাও জানাতে পারেন। সেই অপশনও থাকছে। অ্যাপটির সাইজ আরও ছোট হয়ে গিয়েছে। নতুন হোয়াটসঅ্যাপের সাইজ এখন মাত্র ৬ এমবি। এছাড়াও জনপ্রিয় এই মেসেজিং অ্যাপটির ৪৭৩টি ছোটখাট ত্রুটি নতুন ভার্সনে ঠিক করে দেওয়া হয়েছে।

[WhatsApp নিয়ে এল তাদের সবচেয়ে বড় আপডেট]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং