BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফের রক্তাক্ত কাবুল, সেনা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে আত্মঘাতী হামলায় মৃত্যুমিছিল

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 29, 2018 5:34 am|    Updated: January 29, 2018 5:35 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় কেঁপে উঠল আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল। এবার ফিদায়েঁ জঙ্গিদের নিশানায় মার্শাল ফাহিম মিলিটারি অ্যাকাডেমি। সোমবার সকালের এই হামলায় এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে বেশ কয়েকজন আফগান সেনার। গুলির লড়াইয়ে খতম হয়েছে তিন জঙ্গিও।

[হিট লিস্টে মোদি, পাকিস্তানে বসে হুঙ্কার জইশ জঙ্গি তালহার]

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, এদিন ভোর ৫টা নাগাদ সেনা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে হামলা চালায় পাঁচ আত্মঘাতী জঙ্গির দল। প্রথমে হামলার মুখে পড়ে মিলিটারি অ্যাকাডেমির গেটে থাকা নিরাপত্তারক্ষীদের একটি চেকপোস্ট। সেখানে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটায় এক জঙ্গি। বাকিরা এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে চালাতে অ্যাকাডেমির ভিতরে পৌঁছে যায়। জঙ্গিদের কাছে রকেট লঞ্চার, গ্রেনেড, মেশিনগান-সহ ভয়ঙ্কর মারণাস্ত্র রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বিবিসি সূত্রে শেষ পাওয়া খবরে জানা যাচ্ছে, সংঘর্ষ এখনও অব্যাহত। সেনা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রটির ভিতর থেকে ক্রমাগত ভেসে আসছে বিস্ফোরণ ও গুলির শব্দ। আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রক  জানিয়েছে, পাঁচজনের একটি আত্মঘাতী বাহিনী হামলাটি চালায়। ইতিমধেই নিকেশ করা হয়েছে তিন জঙ্গিকে। মৃত্যু হয়েছে একাধিক আফগান সেনার। তবে এখনও লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে বাকি জঙ্গিরা। ইতিমধ্যে সমস্ত এলাকা ঘিরে অভিযান শুরু করেছে আফগান সেনা। সমস্ত রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এখনও পর্যন্ত এই হামলার দায় স্বীকার করেনি কোনও জঙ্গি সংগঠন। উল্লেখ্য, গত শনিবার কাবুলের সেদারাত স্কোয়্যার চত্বরে ভয়াবহ গাড়িবোমা বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা। ওই হামলায় প্রাণ হারান শতাধিক নিরীহ মানুষ। এর সপ্তাহ খানেক আগেই রাজধানীর বিলাসবহুল হোটেলে হামলা চালায় বন্দুকবাজরা। ওই হানায় ২২ জনের মৃত্যু হয়। দুই হামলারই দায় স্বীকার করে তালিবান। এদিকে নাশকতা রুখতে সক্রিয় আফগান প্রশাসন। সম্প্রতি প্রতিবেশী পাকিস্তানকে একহাত নেওয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্টকে ‘পুরস্কৃত’ করেছেন আফগানরা। হাতে তৈরি সোনার মেডেল বা সাহসিকতার পুরস্কার দেওয়া হয়েছে ট্রাম্পকে।

[ফের রক্তাক্ত কাবুল, অভিজাত হোটেলে চার বন্দুকবাজের হামলা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement