BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে বিদেশের মাটিতে ভারতকে অসম্মানের ছক কষছে ISI

Published by: Tanujit Das |    Posted: August 4, 2018 6:26 pm|    Updated: August 4, 2018 6:26 pm

ISI is drawing up elaborate plans to embarrass India during the Independence day functions in London

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচনে জয়ী হয়ে, জাতির উদ্দেশে দেওয়া প্রথম ভাষণে ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ঠিক করার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ইমরান খান৷ সম্ভবত ভাবি পাক প্রধানমন্ত্রীর মনের ইচ্ছা কল্পনার স্তরেই রয়ে যাবে৷ নয়াদিল্লি-ইসলামাবাদের মধ্যেকার সম্পর্ক ঠিক করতে কতটা সচেষ্ট পাক গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই, সেই বিষয়ে প্রশ্ন কিন্তু থেকেই যাচ্ছে৷ বিশেষ করে, ভারতের স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে যখন ভারত বিরোধী গোষ্ঠীদের মদত দেওয়ার অভিযোগ উঠছে আইএসআই-এর বিরুদ্ধে৷

[রুশ অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম কিনতে ভারতকে ছাড় আমেরিকার]

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, স্বাধীনতা দিবসের আগেই লন্ডনের মাটিতে ভারতকে বেকায়দায় ফেলতে চাইছে পাক গোয়েন্দা সংস্থা৷ সেজন্য তারা যোগাযোগ করেছে বিভিন্ন খালিস্থানী সংগঠনের সঙ্গে৷ লন্ডনে গিয়ে ইতিমধ্যে এই সংগঠনগুলির সঙ্গে বৈঠকও করে এসেছে পাক প্রশাসনের উচ্চকর্তারা৷ জানা গিয়েছে, আগামী ১২ আগস্ট, অর্থাৎ ১৫ আগস্টের তিনদিন আগে লন্ডনে ভারত বিরোধী একটি মিছিল করতে চলেছে খলিস্তানি সংগঠনগুলি৷ স্বাধীন খলিস্তানের দাবিতে এবং ১৯৮৪-র শিখ গণহত্যার প্রতিবাদে হতে চলেছে সেই মিছিল৷ সূত্রের খবর, এই মিছিলকে ব্যবহার করেই লন্ডনের মাটিতে ভারতকে খাটো করতে চাইছে পাক গোয়েন্দা সংস্থা৷

[পাকিস্তানে ‘কর্ণাটক মডেল’! ইমরানকে রুখতে মহাজোট নওয়াজ-বিলাবলের]

কেবল পাক গোয়েন্দা সংস্থাই নয়৷ জানা গিয়েছে, খলিস্তানি সংগঠনগুলিকে উসকানি দিচ্ছে লন্ডনে বসবাসকারী বিভিন্ন কাশ্মীরি বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতারাও৷ এই যৌথ মগজ ধোলাইয়ে দ্বারা প্রভাবিত হয়েই সম্প্রতি এই বিষয়ে যৌথ সাংবাদিক সম্মেলন করেছে World Kashmir Freedom Movement, Kashmir Patriotic Forum International ও Pakistani Welfare Organisation-এর মতো সংগঠনগুলি৷ যাতে নেতৃত্ব দিয়েছে পরমজিৎ সিং পাম্মা নামে এক খলিস্তানি নেতা৷ প্রসঙ্গত, পাক নির্বাচন শুরুর আগে থেকেই পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) প্রধান ইমরান খানের বিরুদ্ধে সেনা ও আইএসআই-এর সঙ্গে সখ্যতা নিয়ে অভিযোগ ওঠে৷ নির্বাচনে জয়ের পর সেই অভিযোগ আরও জোড়ালো করে বিরোধীরা৷ নির্বাচনে জিতে প্রথম বক্তৃতায় ইমরান বলেছিলেন ভারত বন্ধুত্বের দিকে এককদম এগোলে, তিনি দু’কদম এগোবেন৷ তবে পাক গোয়েন্দা সংস্থাই এই কার্যকলাপ ভাবি প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছার বাস্তবায়ন নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল বলে মনে করছেন আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ মহল৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে