২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৭ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কেরলের বন্যার্তদের নিয়ে ফেসবুকে রসিকতা, চাকরি খোয়ালেন যুবক

Published by: Shammi Ara Huda |    Posted: August 20, 2018 12:14 pm|    Updated: August 20, 2018 12:14 pm

Man makes insensitive remark on Kerala flood, sacked

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  কেরলের বন্যার্তদের নিয়ে ফেসবুকে কুৎসিত রসিকতার অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে। আর তার জেরেই চাকরি খোয়ালেন ওই যুবক। অভিযুক্তের নাম রাহুল চেরু পালায়াত্তু। তিনিও কেরলেরই বাসিন্দা। বহুজাতিক সংস্থা লুলু গ্রুপের ক্যাশিয়ার পদে কর্মরত তিনি। থাকেন মধ্যপ্রাচ্যের ওমানে।

সম্প্রতি ভয়াবহ বন্যায় আক্রান্ত দক্ষিণ ভারতের সবুজ রাজ্য কেরল। সেখানে এখন খাদ্য, বস্ত্র, পানীয়, ওষুধ ও স্যানিটারি ন্যাপকিনের হাহাকার। কেন্দ্র, রাজ্য ও বিভিন্ন সংস্থার তরফে আসছে ত্রাণ। বিদেশ থেকেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এমত অবস্থায় ফেসবুকেই বন্যাবিধ্বস্ত কেরলের স্যানিটারি ন্যাপকিনের চাহিদা নিয়ে বিদ্রুপাত্মক মন্তব্য করেন রাহুল। কিছুক্ষণের মধ্যেই পোস্টটি শেয়ার হওয়ায় বিভিন্ন জনের ওয়ালে ছড়িয়ে পড়ে। নেটিজেনরা সমালোচনায় মুখর হন। খবর পৌঁছায় লুলু গ্রুপের কাছেও। নিজেদের সংস্থার কর্মীর করা এহেন রসিকতায় কর্তৃপক্ষ বেজায় ক্ষুব্ধ। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই ওই কর্মীকে বরখাস্ত করা হয়।

[দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রে ওয়াশিংটনে হামলার ছক কষছে চিন!]

এরপরেই এক বিবৃতিতে সংস্থার জনসংযোগ আধিকারিক ভি নন্দকুমার বলেন, ‘বন্যাবিধ্বস্ত কেরলবাসীর পাশে আছি। ওই কর্মীর ফেসবুক পোস্ট দেখার পরেই তাঁর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আমরা এমনই একটি সংস্থার অন্তর্গত যা সবসময় মানবিক মূল্যবোধের কথা বলে। কেরলের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অসহিষ্ণু ও অসম্মানজনক মন্তব্য করেছিলেন সংস্থার কর্মী। তাঁকে সঙ্গেসঙ্গেই বরখাস্ত করা হয়েছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রিপোর্টিং ম্যানেজারকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়ে রাহুলকে অফিস ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বেতন সংক্রান্ত চূড়ান্ত বিধিব্যবস্থা বুঝে নিতে এইচআর বিভাগের সঙ্গে কথা বলে নিতে পারেন রাহুল।’

এদিকে চাকরি খোয়ানোর পরেই হুঁশ ফেরে ওই যুবকের। সঙ্গে সঙ্গেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষমা চেয়ে আরও একটি পোস্ট করেন তিনি। বলেন, “এই মন্তব্যের জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী। মদ্যপ অবস্থায় পোস্ট করেছিলাম। বড়সড় ভুল করে ফেলেছি।” তবে তাতে অফিস কর্তৃপক্ষের মন গলেনি। বলা বাহুল্য, বহুজাতিক সংস্থা লুলু গ্রুপের মালিক ভারতীয়। তিনি কেরালার বাসিন্দা। নাম এমএ ইউসুফ আলি। বন্যাদুর্গতদের জন্য কেরলকে ইতিমধ্যেই তিনি সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর মুদ্রায় ৯.২৩ মিলিয়ন দিরহাম দিয়েছেন। বাইরে থেকে সাহায্যের জন্য তৈরি সংযুক্ত আরব আমিরশাহী প্রশাসন। দক্ষিণ ভারতের এই রাজ্যটিকে সাহায্যের জন্য ইতিমধ্যেই কমিটি গঠন করে আলাপ আলোচনা শুরু হয়েছে।

[গ্রেপ্তার দাউদ ঘনিষ্ঠ জাবির মোতি, বড় সাফল্য লন্ডন পুলিশের]

উল্লেখ্য, গত ১০০ বছরের মধ্যে এমন ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়নি ‘ঈশ্বরের আপন দেশ’ কেরল। সরকারি মতে বন্যায় ইতিমধ্যে ৪০০ জনের সলিল সমাধি হয়েছে। বেসরকারি মতে সংখ্যাটা হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। বন্যায় ইতিমধ্যেই নিখোঁজ প্রায় ২০০০ কেরলবাসী। ক্ষতির পরিমাণ ছাড়িয়েছে ১৯ হাজার ৫০০ কোটি টাকা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে