BREAKING NEWS

৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ভার্চুয়াল জগতে ‘ঠান্ডা লড়াই’ চিন-আমেরিকার, পিছিয়ে নেই ভারতও  

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: January 29, 2019 2:20 pm|    Updated: January 29, 2019 2:20 pm

US-China fights over cyber world

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ‘ট্রেঞ্চ ওয়ার’ থেকে নাৎসি জার্মানির ‘মেকানাইজড ওয়ার’। যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে পালটেছে রণনীতি। রাইফেল হাতে সম্মুখ সমর থেকে ঠান্ডাঘরে বসে বোতাম টিপে মিসাইল হামলা। প্রযুক্তির দ্রুত উন্নতিতে আরও শক্তিশালী হয়েছে যুদ্ধাস্ত্র। এই পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে তৈরি হয়েছে ‘ভার্চুয়াল ওয়ার’ বা সাইবার যুদ্ধের আশঙ্কা। ফলে এবার আর মাটিতে নয়, যুদ্ধ হতে পারে ইন্টারনেটের দুনিয়ায়। তাই দুনিয়ার ইন্টারনেট ব্যবস্থা কে নিয়ন্ত্রণ করা নিয়ে ‘ঠান্ডা লড়াই’ শুরু হয়েছে চিন ও আমেরিকার মধ্যে। তবে পিছিয়ে নেই ভারতও। এবার ‘সাইবার এজেন্সি’ গঠন করতে চলেছে ভারতীয় সেনা।

[হলুদ জ্যাকেটের পালটা, এবার প্যারিসের পথে নামল লাল রুমাল]

জানা গিয়েছে, নেট দুনিয়ায় চিনকে হারাতে মিত্র দেশগুলির উপর চাপ বাড়াচ্ছে আমেরিকা। একদিকে ব্রিটিশ বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হচ্ছে ওয়াশিংটনে, অন্যদিকে সতর্ক করা হচ্ছে পোল্যান্ডকে। ট্রাম্প প্রশাসন সাফ জানিয়েছে, চিনা সংস্থা হুয়াওয়েকে ফাইভ জি ইন্টারনেট পরিকাঠামো বাস্তবায়নের বরাত দিলে পোল্যান্ডে মার্কিন সেনার স্থায়ী ঘাঁটি স্থাপনের প্রকল্প ধাক্কা খাবে। ওই চিনা সংস্থার বিষয়ে জার্মানিকেও আশঙ্কার কথা জানিয়েছে ওয়াশিংটন। সম্প্রতি মার্কিন সংবাদপত্র ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস’ ‘ইউএস স্ক্র্যাম্বলস টু আউটরান চায়না ইন নিউ আর্মস রেস’ নামে একটি প্রবন্ধ প্রকাশ করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, ফাইভ জি প্রযুক্তির ইন্টারনেট পরিষেবার শক্তি হচ্ছে গতি। এই উচ্চগতির ইন্টারনেট ব্যবস্থা গড়ে উঠলে ব্যাপক হারে বাড়বে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ও আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের ব্যবহার। সমস্যা হচ্ছে, ফাইভ জি ইন্টারনেট ব্যবস্থায় যে সফটওয়্যার ব্যবহার করা হবে, তার যে কোনও রকম পরিবর্তন করা সম্ভব হবে ব্যবহারকারীর অজ্ঞাতেই। ফলে যার হাতে ইন্টারনেটে ব্যবস্থার নিয়ন্ত্রণ থাকবে তার পক্ষে বিপুল পরিমাণ তথ্য পরিবর্তন ও নকল করার সুযোগ খুলে যাচ্ছে। নিউ ইয়র্ক টাইমস লিখেছে, ফাইভ জি ইন্টারনেট ব্যবস্থার নিয়ন্ত্রণ যার হাতে যাবে সে আগামী একশো বছর দুনিয়ার নেতৃত্বে থাকবে। ফলে হুয়াওয়েকে ব্যবহার করে যে কোনও ধরনের কারচুপি করতে পারবে বেজিং। 

এদিকে নেট দুনিয়ার এই লড়াইয়ে নিরাপত্তা বজায় রাখতে প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারতও। তাই শত্রুর থেকে এক কদম এগিয়ে থাকতে এবার ‘সাইবার এজেন্সি’ গঠন করতে চলেছে ভারতীয় সেনা। এমনটাই জানিয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল এম এম নারাভান। সাইবার হামলা ঠেকাতে ও পালটা মার দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত। এর জন্য বিশেষ ‘সাইবার এজেন্সি’ গঠন করছে ভারতীয় সেনা। এই এজেন্সির শীর্ষে থাকবেন একজন মেজর জেনারেল পদমর্যাদার অফিসার। এই ইন্টার সার্ভিস এজেন্সি স্থলসেনা, বায়ুসেনা ও নৌসেনার মধ্যে সমন্বয় বজায় রেখে কাজ করবে। প্রাথমিকভাবে ২০০ জন অফিসারের একটি টিম তৈরি করা হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় এই এজেন্সির ইউনিট মোতায়েন থাকবে। এর জন্য গোটা দেশ থেকে কম্পিউটার বিশেষজ্ঞদের বিশেষ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নিয়োগ করা হবে। জানা গিয়েছে,  রাশিয়া ও চিনের আদলে একটি  ‘সাইবার কমান্ড’ গড়ে তোলার দিকে প্রথম পদক্ষেপ সাইবার এজেন্সি।

[পুরুষের নজর এড়াতে তরুণীদের স্তনে গরম পাথরের ছেঁকা!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে