৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসৎ আচরণের অভিযোগে তদন্তের মুখে বাংলাদেশের হাই কোর্টের তিন বিচারপতি। সাময়িকভাবে তাঁদের বিচারপ্রক্রিয়া থেকে বিরত থাকার নির্দশ দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হুসেন।

[আরও পড়ুন: তিস্তা নিয়ে প্রতিশ্রুতি থেকে সরছে না দিল্লি, ঢাকায় দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বললেন জয়শংকর]

সুপ্রিম কোর্ট সূত্রে খবর, বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে অভিযুক্ত তিন বিচারপতির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে এই পসক্ষেপ করা হয়েছে। হাই কোর্টের অভিযুক্ত তিন বিচারক হলেন বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরি, বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হক এবং বিচারপতি কাজী রেজাউল হক। বৃহস্পতিবার তাঁদের নির্ধারিত বেঞ্চ সুপ্রিম কোর্টের কার্যতালিকায় রাখা হয়নি। তিন বিচারকও আদালতের বিচারে অংশ নেননি। তিন বিচারকের বিরুদ্ধে ঠিক কী অভিযোগ রয়েছে, তা স্পষ্ট করেনি সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ অনুসন্ধানের পরেই জানা যাবে বলে জানানো হয়েছে।  

বাংলাদেশের বিচার ব্যবস্থায় অভ্যন্তরীণ দুর্নীতির অভিযোগ নতুন কিছু নয়। একাধিক বিচারপতির বিরুদ্ধে ক্ষোভ জমছে ক্রমশই। সেই ক্ষোভ প্রশমিত করতেই এই ব্যবস্থা বলে পরোক্ষে ইঙ্গিত দিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মেহবুবে আলম। তিনি বলেন, ‘প্রধান বিচারপতি ও রাষ্ট্রপতি আলোচনা করেই তদন্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর দ্বারা যাঁরা বিপথে চলেছেন তাঁদের কড়া বার্তা দেওয়া হয়েছে।’  এদিকে, অভিযুক্ত তিন বিচারপতির বিরুদ্ধে ঠিক কী ধরনের অসৎ আচরণের অভিযোগ রয়েছে তা স্পষ্ট করেনি শীর্ষ আদালত।           

[আরও পড়ুন: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, কিশোরীর অভিযোগের কী জবাব দিলেন নোবেল?]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং