১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘অনেকে আমাকে ভারতের দালাল বলে’, বিস্ফোরক বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: August 19, 2022 2:58 pm|    Updated: August 19, 2022 3:03 pm

Bangladesh foreign minister says, People consider me as India's agent | Sangbad Pratidin

সুকুমার সরকার, ঢাকা: ”শেখ হাসিনার সরকারকে টিকিয়ে রাখার জন্য যা যা করা দরকার, আমি ভারত সরকারকে সেটা করার অনুরোধ করেছি।” বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশের (Bangladesh) বন্দরনগর চট্টগ্রাম নগরের জেএম সেন হলে জন্মাষ্টমী উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিদেশমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন এমনই বলেন। তাঁর কথায়, ”আমি ভারতে গিয়ে বলেছি, শেখ হাসিনাকে টিকিয়ে রাখতে হবে। শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina)আমাদের আদর্শ। তাঁকে টিকিয়ে রাখতে পারলে আমাদের দেশ উন্নয়নের দিকে যাবে এবং সত্যিকারের সাম্প্রদায়িকতামুক্ত, অসাম্প্র্রদায়িক একটা দেশ হবে।” এরপরই বিদেশমন্ত্রী মোমেন বিস্ফোরক মন্তব্য করেন। বলেন, ”অনেকে আমাকে ভারতের দালাল বলে। কারণ, অনেক কিছুই হয়, আমি স্ট্রং কোনও স্টেটমেন্ট দিই না।”

ভারত (India) সফরের প্রসঙ্গ টেনে বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রীর বক্তব্য, ”আমি বলেছি, আমার দেশে কিছু দুষ্ট লোক আছে, কিছু উগ্রবাদী আছে। আমার দেশ সারা পৃথিবী থেকে বিচ্ছিন্ন না। আপনার দেশেও যেমন দুষ্ট লোক আছে, আমাদের দেশেও আছে। কিছুদিন আগে আপনাদের দেশেও এক ভদ্রমহিলা কিছু কথা বলেছিলেন, আমরা সরকারের পক্ষ থেকে একটি কথাও বলিনি। বিভিন্ন দেশ কথা বলেছে, আমরা বলিনি। এ ধরনের প্রোটেকশন আমরা আপনাদের দিয়ে যাচ্ছি। সেটা আপনাদের মঙ্গলের জন্য, আমাদের মঙ্গলের জন্য। আমরা যদি একটু বলি, তখন উগ্রবাদীরা আরও সোচ্চার হয়ে আরও বেশি বেশি কথা বলবে। তাতে আমাদের দেশের আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নিত হবে। আমাদের স্থিতিশীলতা বিঘ্ন হবে।”

[আরও পড়ুন: পরকীয়া করছেন স্বামী, সন্দেহ হতেই পুরুষাঙ্গে গরম জল ঢাললেন স্ত্রী]

বিদেশমন্ত্রীর মতে, ভারতের কাছে তাঁদের বার্তা, কেউই যেন উস্কানিমূলক কোনও কর্মকাণ্ডকে কখনও প্রশ্রয় না দেয়। এটা করতে পারলে ভারত এবং বাংলাদেশ – উভয়েরই মঙ্গল। তাঁরা মনে করেন, শেখ হাসিনা আছেন বলেই ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক রয়েছে। সীমান্তে অতিরিক্ত খরচ নেই। প্রতি বছর ২৮ লক্ষ মানুষ বাংলাদেশ থেকে ভারতে বেড়াতে যায়। ভারতের কয়েক লক্ষ লোক বাংলাদেশে কাজ করে। ভারত সরকারের প্রতি তাঁর আরও বার্তা,” রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা থাকবে যদি আমরা উভয়ে শেখ হাসিনাকে সমর্থন দিই।”

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে পড়াশোনা, বাংলায় এসে শিক্ষকতার আড়ালে জঙ্গি নিয়োগ, রহস্যময় চরিত্র রাকিব]

উস্কানি না দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিদেশমন্ত্রী মোমেন বলেন, ”আমরা এমন কাজ করব না, ফুলিয়ে-ফাঁপিয়ে এমন কোনো উস্কানি দেব না, যাতে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। আমাদের প্রতিবেশী দেশে কিছু মসজিদ পুড়েছে। আমরা কোনোভাবে সেটা প্রচার করতে দিইনি। এর কারণ হচ্ছে কিছু দুষ্ট লোক আছে, কিছু জঙ্গি আছে যারা এই বাহানায় আরও অপকর্ম করবে। আমরা এটা নিয়ন্ত্রণ করেছি।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে