BREAKING NEWS

১৯  মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

শুরু প্রজননের মরশুম, ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ করল বাংলাদেশ

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 7, 2019 11:00 am|    Updated: October 7, 2019 11:01 am

Bangladesh imposes fresh ban on Hilsa catching from Wednesday

ছবি- প্রতীকী

সুকুমার সরকার, ঢাকা: আগামী বুধবার থেকে ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞা জারি করল বাংলাদেশ সরকার। প্রজনন মরশুম হওয়ায় ‘মা’ মাছ সংরক্ষণে এই পদক্ষেপ করা হয়ছে বলে জানিয়েছে প্রশাসন। টানা ২২ দিন জারি থাকবে এই নিষেধাজ্ঞা।

[আরও পড়ুন: নিরামিষ পদে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে আপ্যায়ণ মোদির, হাসাহাসি রাজনৈতিক মহলে]

রবিবার বাংলাদেশের মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রকের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, আগামী ৯ থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন ইলিশ ধরার উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এই সময় সারা দেশে ইলিশ শিকার, পরিবহণ, মজুত ও কেনাবেচা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ থাকবে। এর অন্যথা হলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কড়া আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে। এই সিদ্ধান্তের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্যজীবীদের পাশে সরকার দাঁড়াবে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রধানত আশ্বিনের পূর্ণিমার চার দিন আগে এবং পূর্ণিমার পর ১৮ দিন পর্যন্ত সময়ে মা ইলিশ ডিম পাড়ে। গত কয়েক বছর এই মরশুমে মাছ ধরায় বিধিনিষেধের ফলে বাংলাদেশে ইলিশ মাছের উৎপাদন দ্বিগুণ হয়েছে বলে প্রশাসের দাবি। পরিসংখ্যান বলছে, গত ১০ বছরে বাংলাদেশে ইলিশের উৎপাদন ৭৮ শতাংশ বেড়েছে। ফলে এখন দেশের শতাধিক উপজেলার নদীতে তা পাওয়া যাচ্ছে।

চাঁদপুর জেলা মৎস্য বিভাগ সূত্রে খবর, জেলার মতলব উত্তর, মতলব দক্ষিণ, চাঁদপুর সদর ও হাইমচর উপজেলায় ৫১ হাজার ১৯০ জন মৎস্যজীবী ইলিশ শিকার করেন৷ এসব জেলেরা ২২ দিন যাতে নদীতে মাছ শিকার না করা হয়, সে জন্য ইতিমধ্যে মাইকিং ও তাঁদের মধ্যে লিফলেট বিতরণ করে সচেতন করা হয়েছে৷ মৎস্য আড়ত এলাকায় জেলা মৎস্য বিভাগের পক্ষ থেকে ব্যানার টাঙানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: পদ্মাপারের পুজোয় থিমের রমরমা, মণ্ডপ দেখতে ভিড় আট থেকে আশির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে