১০ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুকুমার সরকার, ঢাকা: রোহিঙ্গাদের স্বদেশে ফেরাতে রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের সঙ্গে বৈঠক করলেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী মহম্মদ শাহরিয়ার আলম। বুধবার দুপুরে নিউইয়র্কে আয়োজিত এই বৈঠকে রাষ্ট্রসংঘের বিভিন্ন বিষয়ের পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন নিয়েও আলোচনা হয়।

[আরও পড়ুন- খাতায় কলমেই আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা, অবাধে যুদ্ধাস্ত্র কিনছে মায়ানমার ]

জানা গিয়েছে, ওই বৈঠকে বাংলাদেশের বিদেশ প্রতিমন্ত্রী রোহিঙ্গা সংকটের বিষয়ে সমস্ত তথ্য তুলে ধরেন। রোহিঙ্গাদের রাখাইনে প্রত্যর্পণের বিষয়ে মায়ানমার সরকারের অসহযোগিতা এবং অন্যান্য সমস্যাগুলি সম্পর্কেও রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিবকে অবহিত করেন। আন্তর্জাতিক আদালতে যাওয়ার বিষয়ে ওআইসি-র সম্মেলনে গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কেও জানান তাঁকে।

বিশ্বব্যাপী বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনে রাষ্ট্রসংঘকে অংশ নিতেও অনুরোধ জানান শাহরিয়ার আলম। বৈঠকে রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব অগ্রগতির প্রশংসা করেন। রোহিঙ্গা প্রত্যর্পণ শুরু না হওয়ার কারণে গভীর উদ্বেগও প্রকাশ করেন। পাশাপাশি বরাবরের মতোই রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকারের মানবিক সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। 

[আরও পড়ুন- ৯৩ শতাংশ ওষুধই মেয়াদোত্তীর্ণ! বাংলাদেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার বেহাল দশা]

জলবায়ু পরিবর্তন ইস্যুতে বাংলাদেশের উদ্যোগেরও ভূয়সী প্রশংসা করেন আন্তোনিও গুতেরেস। তিনি বলেন, “আসন্ন ক্লাইমেট অ্যাকশন সামিটে বাংলাদেশের সক্রিয় এবং ফলপ্রসূ অংশগ্রহণের দিকে তাকিয়ে আছে রাষ্ট্রসংঘ। এছাড়া রাষ্ট্রসংঘের শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ যে অসামান্য অবদান রেখে চলেছে তা সত্যিই প্রশংসার যোগ্য।”

বুধবারের ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিদেশসচিব মহম্মদ শহিদুল হক এবং রাষ্ট্রসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেনও। বুধবার সন্ধ্যায়ও রাষ্ট্রসংঘের পিস অপারেশন বিভাগের প্রধান আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল জ্যঁ পিয়েরে ল্যাক্রুয়ারও সঙ্গে করেন শাহরিয়ার আলম। ওই বৈঠকে শান্তিরক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয় বলেই জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং