BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

করোনা সংক্রমণ রুখতে ভারতের পথে বাংলাদেশ, চিহ্নিত লাল-সবুজ-হলুদ জোন

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 1, 2020 6:07 pm|    Updated: June 1, 2020 6:09 pm

An Images

ফাইল ফটো

সুকুমার সরকার, ঢাকা: লকডাউন তুলে দেওয়ার পর করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় ভারতের পথেই হাঁটছে বাংলাদেশ। গোটা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ – এই তিন জোনে ভাগ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালিক স্বপন। সোমবার ঢাকায় সচিবালয়ে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ বিষয়ে কী কী করণীয়, বৈঠক শেষে তা সাংবাদিকদের বলেন মন্ত্রী।

বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালিক স্বপন জানান, ”আমাদের সংক্রমণের হার প্রতিদিনই বাড়ছে। পাশাপাশি করোনা পরীক্ষার হারও বাড়ছে। সেজন্য কয়েকটা জোন মার্কিং করছি।” এবার সব মন্ত্রণালয়ের ২৫ শতাংশের বেশি আধিকারিক অফিস করতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফারহাদ হোসেন। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ”আমরা নিষেধাজ্ঞা-সহ স্বল্প পরিসরের সরকারি অফিস খুলেছি। অনেক বেসরকারি ও আধা-সরকারি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। এর আগে আমাদের ১৮টি মন্ত্রণালয় স্বল্প পরিসরে এতদিন চালু ছিল। রবিবার প্রথম দিন আমরা সচিবালয়ে যে চিত্র দেখেছি, অধিকাংশ মন্ত্রণালয়ে বলেছি যে, বয়স্ক আধিকারিকরা আসবেন না, অসুস্থ এবং সন্তানসম্ভবা নারী আধিকারিকরাও আসবেন না, সেই দিকটা আমরা খেয়াল রেখেছি।”

[আরও পড়ুন: মাস্ক ছাড়া বেরোলেই সর্বোচ্চ এক লক্ষ টাকা জরিমানা, কড়া নির্দেশ হাসিনা প্রশাসনের]

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৬৭২। রবিবার একলাফে মৃত্যু হয়েছিল ৪০জনের, সেটাই দেশে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২৩৮১ জন। এই মুহূর্তে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৯ হাজার ৫৩৪। সোমবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা ভাইরাস বিষয়ক নিয়মিত মেডিক্যাল বুলেটিনে অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এই তথ্য জানান।

[আরও পড়ুন: লকডাউন ওঠার প্রথমদিনেই রেকর্ড মৃত্যু বাংলাদেশে, বাড়ল আক্রান্তের সংখ্যাও]

অপরদিকে, করোনা মোকাবিলায় দেশবাসীকে সতর্ক করে দিয়ে আওয়ামি লিগ সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ”জনগণের অসচেতনতা ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় পরিস্থিতি যদি আবারও অবনতি হয়, তাহলে সরকারকে বাধ্য হয়ে লকডাউনের মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হবে।” গণপরিবহণ চালু ও ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়ে তিনি বলেন, ”করোনা সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অর্ধেক আসন খালি রেখে গাড়ি চালানো শুরু হয়েছে। দর্শনার্থীরা যাতে সচিবালয়ে প্রবেশ করতে না পারে এ জন্য এই ১৫ দিনে কোনো পাস ইস্যু করা হবে না। অত্যাবশ্যকীয় যে কাজগুলো আছে, এখন আমরা সেইগুলো সারতে চাই। সেক্ষেত্রে ২০ শতাংশ আধিকারিক উপস্থিত থাকবেন।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement