BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ২৮ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সংক্রমণের আশঙ্কায় ঢাকার মসজিদে তালাবন্দি ৩২১ জন তবলিঘি জামাত সদস্য

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 4, 2020 6:15 pm|    Updated: April 4, 2020 6:18 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: দিল্লির নিজামুদ্দিনে আয়োজিত তাবলিঘি জামাত (Tabligh Jamaat) -এর সমাবেশে যোগ দেওয়া মানুষগুলির জন্য ভারতে করোনার সংক্রমণ অনেকাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। এর জেরে এবার বাংলাদেশে বিদেশ থেকে আসা ৩২১ জন তাবলিঘি জামাতের প্রচারককে ঢাকার দুটি মসজিদে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। সেখানে তাদের রীতিমতো তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছে। কারও ঢোকা বা বেরোনো পুরোপুরি নিষিদ্ধ। তাবলিঘির বিবাদমান দুটি গোষ্ঠীর মধ্যে মৌলানা সাদের অনুগামী ১৯১ জনকে রাখা হয়েছে কাকরাইল জামে মসজিদে। অন্যদিকে মৌলানা জোবায়েরের অনুগামী বাকি ১৩০ জনকে রাখা হয়েছে যাত্রাবাড়ির কলাপট্টি মদিনা জামে মসজিদে।

Bangladesh mosque

দুটি গোষ্ঠীর লোকজনকেই ওই দুটি মসজিদে আলাদা ঘরে রেখে তালা দেওয়া হয়েছে। নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, তাদের সঙ্গে কাউকে দেখা করতে দেওয়া হবে না। আর কেউ ওই ঘর থেকে বের হতে পারবে না। এপ্রসঙ্গে যাত্রাবাড়ি ও রমনা থানা পুলিশ জানিয়েছে, ৩২১ জনের মধ্যে ঢাকার কাকরাইল জামে মসজিদে ১৯১ জন আর বাকি ১৩০ জনকে রাখা হয়েছে যাত্রাবাড়ির কলাপট্টি মদিনা জামে মসজিদে।

[আরও পড়ুন: ১৪ এপ্রিলের পরেই দেশে ফেরানো হবে ভারতে আটকে থাকা নাগরিকদের, জানাল বাংলাদেশ ]

যাত্রাবাড়ি থানার ওসি মহম্মদ মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘মদিনা মসজিদে রয়েছে ভারত, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়ার নাগরিকরা। তাদের দাওয়াতির কাজ শেষ। বিমানবন্দর খুললেই তাদের নিজ নিজ দেশে পাঠানো হবে।’ আর রমনা থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘বর্তমানে কাকরাইল মসজিদে কাউকে ঢুকতে ও বেরোতে দেওয়া হচ্ছে না।’

দিল্লিতে তাবলিঘি জামাতের একটি সমাবেশে যোগ দেওয়া অন্তত ৩০০ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে। ওই সমাবেশে অংশ নেওয়া প্রায় ৯ হাজার মানুষ বিদেশ ও দেশের বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে। যার কারণে ভারতে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: চট্টগ্রামে শৃঙ্খলাবদ্ধভাবে ত্রাণ সংগ্রহ করে নজির গড়লেন বৃহন্নলারা, অভিভূত প্রশাসন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement