৩০ চৈত্র  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা, বাংলাদেশে আরও ২ মাস পর খুলবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: March 25, 2021 6:14 pm|    Updated: March 25, 2021 6:14 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দিনক্ষণ ফের পিছিয়ে গেল। গত বছরের মার্চ থেকে লকডাউনের (Lockdown)পর থেকে আগামী ৩০ মার্চ থেকে স্কুল, কলেজ খুলে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) দ্বিতীয় ধাক্কার পর তা বাতিল করা হয়। এবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার নতুন দিনক্ষণ জানালেন বাংলাদেশের শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। ইদের পর অর্থাৎ ১৫ মে’র পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। এই তথ্য জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার রাজধানী ঢাকার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়বে কিনা, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আগামী ৩০ মার্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি থাকলেও বিষয়টি রিভিউ করা হবে। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি বেড়ে যাওয়ায় প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে নতুন করে ভাবা হচ্ছে। দীপু মনি বলেন, ”ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মচারী ও অভিভাবকদের কাউকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলতে চাই না।”

[আরও পড়ুন: মোদির সফরের আগেই বিস্ফোরণ বাংলাদেশে, নিহত ৩]

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে নতুনভাবে চিন্তা করা হবে বলে জানান তিনি। এর আগে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানিয়েছিলেন, ৩০ মার্চ স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়া হবে। পরে অবশ্য করোনা সংক্রমণ ও এতে মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সময় পিছিয়ে যেতে পারে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী। বাংলাদেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে গত বছরের ৮ মার্চ। প্রথম মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ। ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। তবে কওমি মাদ্রাসাগুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে।

[আরও পড়ুন: মসজিদ নির্মাণ নিয়ে বিরোধ, সিলেট সীমান্তে বিএসএফকে বাঙ্কার সরানোর আরজি বাংলাদেশের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement