BREAKING NEWS

২১ চৈত্র  ১৪২৬  শনিবার ৪ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

জলখাবার খেতে পাঠিয়ে চার ভারতীয় পর্যটকের মালপত্র লুট, গ্রেপ্তার ঢাকার অটোচালক

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: February 18, 2020 3:14 pm|    Updated: February 18, 2020 3:21 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে বেড়াতে এসেই ভয়াবহ অভিজ্ঞতার সাক্ষী হলেন চারজন ভারতীয় নাগরিক। তাঁদের মালপত্র নিয়ে চম্পট দেয় ঢাকার এক অটোচালক। পরে অবশ্য হাবিব হাওলাদার নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার পুরনো ঢাকার ধোলাইর পাড় এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এপ্রসঙ্গে DMP’র ওয়ারি থানার পরিদর্শক (অপারেশন) সুজিত কুমার সাহা বলেন, গত মঙ্গলবার সকালে মৈত্রী এক্সপ্রেস থেকে কমলাপুর রেলস্টেশনে সস্ত্রীক নামেন ভারতীয় পর্যটক গণেশ চন্দ্র সরকার ও প্রবীর কুমার গুহ। স্টেশনে নেমেই তাঁরা সিএনজিচালিত অটোতে উঠে পুরনো ঢাকার স্বামীবাগ লোকনাথ ব্রহ্মচারী মন্দিরের উদ্দেশে রওনা দেন। পরে রাস্তায় জলখাবার খাওয়ার জন্য ওয়ারি থানার অভয়দাস লেনের একটি খাবারের দোকানের সামনে নামেন।

[আরও পড়ুন: বিকল্প বাজার খুঁজবেন না, বাংলাদেশকে অনুরোধ করোনা আক্রান্ত চিনের ]

 

এই সময় তাঁরা অটোচালককে জলখাবার খেতে অনুরোধ করেন। কিন্তু, ওই চালক যাত্রীদের সঙ্গে না গিয়ে তাঁদের জলখাবার খেয়ে আসতে বলে। আর খাওয়া সেরে পর্যটকরা বাইরে এসে দেখেন ওই অটোচালক তাঁদের সমস্ত জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়েছে। খোয়া যাওয়া মালপত্রের মধ্যে ছিল দুটি ট্রলি ব্যাগ, কাঁধে ও হাতে ঝোলানো চারটি ব্যাগ ও দুটি ভ্যানিটি ব্যাগ। যার মধ্যে কাপড় ছাড়াও সাত হাজার ভারতীয় এবং বাংলাদেশের সাড়ে তিন হাজার টাকা, চারজনের পাসপোর্ট, ভারতীয় আধার কার্ড, প্যানকার্ড, ভোটার কার্ড ও কলকাতাগামী ট্রেনের চারটি টিকিট ছিল। কিছুক্ষণ বাদে ওয়ারি থানায় এসে ওই অটোচালকের নামে অভিযোগ করা হয়। তদন্তে নেমে ওই সিএনজি অটোর নম্বর শনাক্ত করে চালকের নাম-ঠিকানা বের করে পুলিশ। পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

[আরও পড়ুন: ব্যবসায়ীর সঙ্গে বেআইনি যোগসাজশ, জোর করে কোটি টাকার চেক সই করালেন পুলিশ কর্তা ]

 

পুলিশ সূত্রে খবর, ভারতীয় নাগরিকদের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে জেরা করে আরও কেউ যুক্ত ছিল না কিনা তা জানার চেষ্টা হচ্ছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement