৩০ চৈত্র  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মোদি বিরোধিতায় উত্তাল চট্টগ্রাম, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ৪ হেফাজত সদস্য

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: March 26, 2021 7:34 pm|    Updated: March 26, 2021 7:39 pm

An Images

ফাইল ছবি

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশের (Bangladesh) প্রধান সমুদ্রবন্দর চট্টগ্রামের হাটহাজারিতে পুলিশের সংঘর্ষে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের চার নেতাকর্মী নিহত হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য জেলে গিয়েছি’, ঢাকায় দাঁড়িয়ে বললেন মোদি]

পুলিশ সূত্রে খবর, সংঘর্ষে নিহতরা হল- কুমিল্লার মহম্মদ রবিউল ইসলাম, মাদারীপুরের মহম্মদ মেহরাজুল ইসলাম, ময়মনসিংহের মহম্মদ আবদুল্লা মিজান এবং হাটহাজারির মহম্মদ জসিম। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আলাউদ্দিন তালুকদার জানান, হাটহাজারিতে গুলিবিদ্ধ ৮-৯ জনকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। এর মধ্যে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বলেন, “নিহত ৪ জনের মধ্যে ৩ জন মাদ্রাসা ছাত্র এবং ১ জন পথচারী বলে প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে। ২৬ নম্বর অর্থোপেডিক সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আহতরা। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।”

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে শুক্রবার দুপুরে হাটহাজারি দারুল উলুম মইনুল ইসলাম মাদ্রাসা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নেতাকর্মীরা। মিছিল থেকে হঠাৎ হাটহাজারি থানা, ভূমি অফিস, ডাকবাংলো-সহ বিভিন্ন সরকারি অফিসে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর চালান তারা। এ সময় পুলিশের সঙ্গে হেফাজত নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়। পুলিশ গুলি ছুঁড়লে বেশ কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হন। তাদের চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভরতি করা হয়। এদিকে এই ঘটনার পর হেফাজত নেতাকর্মীরা মাদ্রাসার সামনে অবস্থান নিয়ে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন। হাটহাজারিতে প্রচুর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়নের পাশাপাশি প্রশাসন ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে অবস্থান করছেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাটহাজারি সার্কেল) শাহাদাত হোসেন বলেন, “হঠাৎ থানায় হামলা করা হয়েছে। আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি।” হাটহাজারি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন বলেন, “থানায় হামলার পর তারা ভূমিদপ্তরের অফিসে ঢুকেও ভাঙচুর করেছে। ভূমিদপ্তরের অফিসের ফাইল-আসবাবপত্র সব জড়ো করে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। ভূমিদপ্তরের অফিসের একটি গাড়িতেও আগুন ধরিয়ে দেয় তারা।”

এরআগে মোদির সফরের প্রতিবাদে আজ রাজধানী ঢাকায় নমাজের পর মসজিদ থেকে বেরিয়ে পুলিশের উপর হামলা চালায় মৌলবাদী সংগঠন হেফাজতে ইসলামের সদস্যরা। পুলিশ সূত্রে খবর, ঢাকার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের সামনে হেফাজত সমর্থকদের সঙ্গে সংঘর্ষ হয় পুলিশের। হেফাজত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের প্রতিবাদে শুক্রবার জু্ম্মার নমাজের পর রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখায়। এদিন নমাজ শেষে মসজিদ থেকে বেরিয়ে মৌলবাদীরা বিক্ষোভ মিছিল করতে গেলে বাধা দেয় পুলিশ। পরে নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে হেফাজত। মুসল্লিরা মসজিদ থেকে বেরিয়েই পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশও কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে।

[আরও পড়ুন: মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ঢাকা পৌঁছলেন মোদি, মহাসমারোহে স্বাগত জানালেন হাসিনা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement