২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শনিবার ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শনিবার ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সুকুমার সরকার, ঢাকা: জঙ্গিদমন অভিযানে ফের বড়সড় সাফল্য পেল ‘র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন’ (র‍্যাব)। রাজধানী ঢাকায় এই এলিট বাহিনীর একটি গোপন অভিযানে জালে পড়েছে জেহাদি সংগঠন ‘আনসারুল্লাহ বাংলা টিম’-এর চার জঙ্গি।

রবিবার র‍্যাব-এর তরফে জানানো হয়েছে যে, ঢাকার খিলখেত এলাকা থেকে পাকড়াও করা হয় ওই চার জঙ্গিকে। তাদের কাছ থেকে বেশ কিছু জেহাদি সাহিত্যের বই ও লিফলেট উদ্ধার করা হয়েছে। আপাতত ধৃতদের নাম ও পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে। নিরাপত্তা সংস্থাগুলি মনে করছে, রাজধানীর বুকে ফের বড়সড় হামলার ছক কষছিল ‘আনসারুল্লাহ বাংলা টিম’-এর ওই দলটি। উল্লেখ্য, রাজধানী ঢাকা খুন হওয়া ব্লগার ও সমকামী আন্দোলনের নেতা জুলহাজ মান্নান ও মাহাবুব রাব্বি তনয় হত্য-সহ একাধিক মুক্তমনা ব্লগারদের হত্যায় জড়িত এই জঙ্গি সংগঠনটি। তবে শেখ হাসিনা মসনদে বসার পর কড়া হতেই সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলা করে আসছেন। তাঁর নির্দেশেই দেশজুড়ে চলছে তীব্র সন্ত্রাস বিরোধী অভিযান। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে খতম হয়েছে জেএমবি, নব্য জেএমবি-সহ একাধিক জেহাদি সংগঠনের বেশ কয়েকজন শীর্ষ নেতা।

এক রিপোর্ট মোতাবেক, হোলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার পর সরকারি তৎপরতায় বাংলাদেশে অনেকটাই কমেছে জঙ্গি হামলার ঘটনা। সরকারি পরিসংখ্যান মতে, ২০১৩ সালে চারটি জঙ্গি হামলায় ৯ জন, ২০১৪ সালে পাঁচটি ঘটনায় তিন জন, ২০১৫ সালে ২৩টি ঘটনায় ২৫ জন, ২০১৬ সালে ২৫টি ঘটনায়, এর মধ্যে হোলি আর্টিজানও রয়েছে, ৪৭ জন নিহত হয়। ২০১৩-২০১৬ সালের ১ জুলাই পর্যন্ত জঙ্গি হামলার সংখ্যা বেশি ছিল। হোলি আর্টিজানে হামলার পর সরকার ও পুলিসের বিশেষ পদক্ষেপ ও তৎপরতায় জঙ্গি হামলা দ্রুত কমে যায়। জঙ্গি মোকাবিলায় ঢাকা মহানগর পুলিশ ‘কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি)’ গঠনের পর জঙ্গিদের নেটওয়ার্ক দ্রুত ভেঙে যায়। এছাড়াও এলিট ফোর্স ব়্যাবের অভিযানও ভাল ফল দিয়েছে। সঙ্গে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থাও ছিল তৎপর।

[আরও পড়ুন: নুসরত হত্যা মামলায় বাংলাদেশের পুলিশ আধিকারিকের ৮ বছরের জেলের সাজা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং