Advertisement
Advertisement

Breaking News

Bangladesh

Bangladesh: প্রায় ৯৫% কাজই শেষ পদ্মা সেতুর, আগামী বছর উদ্বোধনের ঘোষণা সেতুমন্ত্রীর

এই প্রকল্পে কাজ করছেন বহু বিদেশি শ্রমিকও।

In Bangladesh people are awating of inauguration of Padma bridge in the next year as almost 95% work have been completed | Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:August 23, 2021 1:43 pm
  • Updated:August 23, 2021 2:10 pm

সুকুমার সরকার, ঢাকা: স্বপ্ন আর অধরা থাকছে না। বাংলাদেশের (Bangladesh) বহু প্রতীক্ষীত পদ্মা সেতুর কাজ আরও এগিয়ে গেল। সোমবারই স্বপ্নের পদ্মা সেতুর রোডওয়ে স্ল্যাব বসানোর কাজ শেষ হয়েছে। ৬.১৫ কিলোমিটার সেতুর সড়কপথ পূর্ণাঙ্গ রূপ পেল। এখন শুধু পিচ ঢালাইয়ের কাজ বাকি থাকবে। সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী বছরই পদ্মা সেতু খুলে যাবে যাতায়াতের জন্য।

সোমবার ভারতীয় সময় পৌনে ১০টা নাগাদ দিকে সেতুর রোডওয়ের শেষ স্ল্যাব বসানো হয়। পদ্মা সেতুর দায়িত্বপ্রাপ্ত ইঞ্জিনিয়ার দেওয়ান আবদুল কাদের জানিয়েছেন, ”পদ্মা নদীর (Padma river) সেতুর কাজ আরও একধাপ এগিয়ে গেল। এছাড়া পদ্মা সেতুর মাঝখান দিয়ে গ্যাসলাইন বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। একইসঙ্গে শেষ হতে চলছে রেললাইনের কাজও। আগামী বছরের জুনের আগেই সম্পূর্ণ কাজ শেষ করা হবে।” এর জন্য পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্পে কর্মরত সবাই একযোগে দিনরাত কাজ করে চলেছেন বলেও জানান আবদুল কাদের।

Advertisement

[আরও পড়ুন: Coronavirus: অতিমারীর গেরোয় এখনই চালু হচ্ছে না ভারত-বাংলাদেশ বিমান পরিষেবা]

এর আগে পদ্মা সেতু প্রকল্প এলাকায় গিয়ে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ঘোষণা করেছেন, ”২০২২ সালের জুন মাসের যে কোনওদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina) এই সেতুর শুভ উদ্বোধন করবেন। সেই লক্ষ্যে সেতু প্রকল্পে কর্মরত দেশি-বিদেশি শ্রমিকরা কাজ করে চলছেন। এ পর্যন্ত মূল সেতুর কাজের ৯৪.৫০ শতাংশ শেষ হয়েছে। এর আগে চলতি বছরের ২০ জুন শেষ হয়েছিল দ্বিতল সেতুর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানোর কাজ। মূল সেতুর কাজের আর বাকি মাত্র ৫.৭৫ শতাংশ।

Advertisement

২০০১ সালে মাওয়া পুরান ফেরিঘাটে মাছ বাজার সংলগ্ন এলাকায় এই সেতুর ফলক উন্মোচন করেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর সরকার বদল হয়ে ক্ষমতায় আসে বিএনপি-জামাত (BNP-Jamat) জোট সরকার। থেমে যায় কাজ। শেখ হাসিনা ফের ক্ষমতায় এলে ২০০৯ সালে আবার কাজের তোড়জোড় শুরু হয়। বিনিয়োগ করতে এসেও মুখ ফিরিয়ে নেয় এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (ADB)। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণের ঘোষণা করেন। অনেক চড়াই-রো উতরাই পার করে অবশেষে ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়।

[আরও পড়ুন: তালিবানের উত্থানে Bangladesh-এ মাথাচাড়া দিতে পারে সাম্প্রদায়িক শক্তি, আশঙ্কা আওয়ামি লিগের]

২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু। এরপর একে একে ৪২টি পিলারে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসানো হয়। ২০২০ সালের ১০ ডিসেম্বর ৬.১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু পুরোপুরি দৃশ্যমান হয়েছিল। একইসঙ্গে চলতে থাকে রোডওয়ে ও রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো-সহ অন্যান্য কাজ। সোমবার রোডওয়ে স্ল্যাব বসানোর কাজ শেষের মধ্য দিয়ে পূর্ণাঙ্গরূপে পদ্মা সেতু চোখের সামনে শুভ উদ্বোধনের অপেক্ষায়। সড়কপথে মোট ২,৯১৭টি রোডওয়ে স্ল্যাব বসানো হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ