BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাংলাদেশে ট্রেনে-বাসে লাফিয়ে বাড়ছে যৌন হয়রানির ঘটনা

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: September 2, 2018 5:26 pm|    Updated: September 2, 2018 5:26 pm

Increasing sexual harassment incidents in Bangladesh

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে দিনে দিনে বেড়েছেই চলেছে ট্রেনে-বাসে যৌন হয়রানির পরিমাণ৷ দ্বিগুণ হারে বেড়েছে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন৷ বাংলাদেশের বর্তমান সমাজ ব্যবস্থায় যৌন হয়রানির ঘটনা ভয়াবহ সামাজিক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে৷ বেপরোয়া ভাবে অপরাধ প্রবণতা বাড়তে থাকায় প্রশ্নের মুখে বাংলাদেশের মহিলাদের নিরাপত্তা৷ খোদ রাজধানী ঢাকায় গণপরিবহণে ৮৪ শতাংশ মহিলা যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে খবর৷

[প্রতি ঘণ্টায় একটি করে তালাকের আবেদন জমা পড়ছে পদ্মাপারে]

চলতি সপ্তাহে ঢাকার অদূরে ফের টাঙ্গাইল জেলার বঙ্গবন্ধু সেতুগামী বাসে ধর্ষণের শিকার হয় প্রতিবন্ধী কিশোরী। বাসচালক, হেল্পার ও সুপারভাইজার মিলে তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ৷ বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার আধিকারিক কবিরুল হক জানান, প্রতিবন্ধী নির্যাতিতা ওই কিশোরীকে পুলিশ উদ্ধার করে৷ ঘটনার তদন্তে নেমে হেল্পার নাজমুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ৷ জেরায় অভিযুক্ত ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷ চালক ও সুপারভাইজারকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে৷

এর আগেও টাঙ্গাইল মহাসড়কে চার মহিলা বাসে ধর্ষণের শিকার হন। গত বছরের ২৫ আগস্ট বগুড়া জেলা থেকে ময়মনসিংহে যাওয়ার পথে টাঙ্গাইলের মধুপুরে চলন্ত বাসে জাকিয়া সুলতানা রুপাকে ধর্ষণের পর নির্মমভাবে হত্যা করে বাসচালক ও হেল্পার। শুধু বাসে নয়, গাড়িতে তুলে নিয়েও ঘটছে নির্যাতন, গণধর্ষণ। ২০১৫ সালের মে মাসে রাজধানী ঢাকায় এক তরুণীকে গণধর্ষণ করা হয়। গত ১০ জুন রাজধানী ঢাকার শের-ই-বাংলা নগর এলাকায় গাড়িতে তুলে নিয়ে এক যুবতীকে ধর্ষণ করা হয়৷ চলতি বছরের ২ জুলাই মাদ্রাসা পড়ুয়া শিশুকে ইঞ্জিনচালিত নৌকায় তুলে গণধর্ষণ করা হয়৷

[রোহিঙ্গাদের সাহায্যে ‘মাল্টি-সেক্টর’ প্রকল্পের প্রস্তাব বিশ্বব্যাংকের]

ফলে, যা পরিস্থিতি তাতে কোনও গণপরিবহণেই নারী কিংবা শিশুরা নিরাপদ নয় বলে জানিয়েছেন অ্যাকশন এইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কবির৷ তিনি জানান জানান, গণপরিবহনে যৌন হয়রানির ঘটনায় অপরাধীদের কঠোর শাস্তি দেয়া হলে এ অপরাধ-প্রবণতা কমে আসবে৷ মহিলা নির্যাতন প্রতিরোধ না করতে পারলে কোনও উন্নয়নেরই সুফল আসবে না৷ সংস্থাটির এক গবেষণায় উঠে এসেছে, রাজধানীতে গণপরিবহণে ৮৪ শতাংশ মহিলা যৌন হয়রানির শিকার৷ আইনজীবী ড. শাহদিন মালিক জানান, প্রতিবন্ধী মহিলা-কন্যাশিশু পর্যন্ত ধর্ষণ, গণধর্ষণের শিকার হচ্ছে। গণধর্ষণের পর হত্যার মতো অপরাধে মাত্র ২ শতাংশ বিচার নিশ্চিত করা হচ্ছে। বাকি ৯৮ শতাংশ অপরাধী পার পেয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ যাত্রী-কল্যাণ সমিতির এক পরিসংখ্যানে জানা গিয়েছে, গত ১৫ মাসে সারা দেশে গণপরিবহণে ১২১ মহিলা ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভানেত্রী আয়শা খানম জানান, মহিলারা কোনও গণপরিবহণেই আজ নিরাপদ নন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে