BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় দোষী সাব্যস্ত, রাজাকারকে ফাঁসির নির্দেশ আদালতের

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 11, 2019 2:34 pm|    Updated: December 11, 2019 2:35 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: বাংলাদেশে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর হয়ে হত্যা-সহ মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আরও এক রাজাকারের মৃত্যুদণ্ড। এবার রাজশাহীর বোয়ালিয়ার মহম্মদ আবদুস সাত্তার ওরফে টিপু রাজাকার ওরফে টিপু সুলতানকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিল আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল।

১৯৭১ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর দুপুর দেড়টা থেকে পরদিন মধ্যরাত পর্যন্ত আসামি টিপু রাজাকার স্থানীয় রাজাকার ও পাকসেনাদের সহযোগিতায় বোয়ালিয়া থানার সাহেব বাজারের এক নম্বর গদিতে (বর্তমানে জিরো পয়েন্ট) হামলা চালিয়ে আওয়ামি লিগ নেতা বাবর মণ্ডলকে আটক করে। এছাড়াও ১৯৭১ সালের ২ নভেম্বর রাত প্রায় ২টার দিকে স্থানীয় রাজাকার ও ৪০ থেকে ৫০ পাকসেনা সঙ্গে নিয়ে বোয়ালিয়া থানার তালাইমারি এলাকায় হামলা চালায় টিপু। হামলায় আওয়ামি লিগ নেতা চাঁদ মিয়া, আজহার আলি শেখ-সহ ১১ জনকে আটক করে অত্যাচার করে। এসময় তারা তালাইমারি এলাকার ১২-১৩টি বাড়িতে লুটপাটও চালায়। পরে ৪ নভেম্বর মধ্যরাতে আটক ১১ জনকে রাবির শহিদ শামসুজ্জোহা হলে স্থাপিত অস্থায়ী ক্যাম্প ও টর্চার সেলে নিয়ে যাওয়া হয়। ৯ জনকে গুলি করে খুন এবং দেহ মাটিতে পুঁতে দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: ‘ছিঁড়বে কাঁটাতার, মরবে বিদ্বেষ’, সৃজিত-মিথিলার বিয়ে প্রসঙ্গে মানবতার বার্তা তসলিমার]

এই দু’টি নৃশংস ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজশাহীর বোয়ালিয়ার মহম্মদ আবদুস সাত্তার ওরফে টিপু রাজাকার ওরফে টিপু সুলতানকে গ্রেপ্তার করা হয়। ২৭ মার্চ, ২০১৮ সালে ওই রাজাকারের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করা হয়। এরপর আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করা হয়। পরে একই বছরের ৮ আগস্ট তার বিরুদ্ধে চার্জশিট গঠন করা হয়। বুধবার বিচারপতি মহম্মদ শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল টিপু সুলতানকে মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ দেয়।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement