BREAKING NEWS

৯ আষাঢ়  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আট মাসেই বাসি স্ত্রী! তালাকের চারদিন পরই নাবালিকা অন্তঃসত্ত্বা শ্যালিকাকে বিয়ে যুবকের

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 5, 2021 3:10 pm|    Updated: May 5, 2021 3:10 pm

Man divorced wife to marry her minor sister in Bangladesh | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

সুকুমার সরকার, ঢাকা: স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কে ইতি টেনে স্কুলপড়ুয়া অন্তঃসত্ত্বা শ্যালিকাকে বিয়ে। হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন। সিনেমার চিত্রনাট্যকেও হার মানায় বাংলাদেশের (Bangladesh) এই ঘটনা।

দেশের দক্ষিণ জনপদ জেলা বরিশালের মুলাদী উপজেলায় স্ত্রীকে তালাক দিয়ে অন্তঃসত্ত্বা শ্যালিকাকেই নতুন জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিলেন যুবক। সেই শ্যালিকা আবার স্কুলছাত্রী। উপজেলার কাজিরচর ইউনিয়নের এই ঘটনায় রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

প্রায় আট মাস আগে ওই যুবকের সঙ্গে পাশের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার এক মেয়ের বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই শ্যালিকার প্রতিই আকৃষ্ট হয়ে পড়েন তিনি। গোপনে সম্পর্ক গভীর হতে থাকে। সদ্য তালাক হওয়া স্ত্রী জানান, বিয়ের কয়েক দিন পর থেকেই তাঁর স্বামী, নাবালিকা বোনের (যুবকের শ্যালিকা) সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। বিভিন্ন সময় বোনকে নিয়ে আত্মগোপন করে থাকতেন। শ্যালিকার সঙ্গে সম্পর্ক এতটাই ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল যে কয়েক মাস আগে উপজেলার প্যাদারহাট এলাকায় তাঁকে নিয়ে বাড়ি ভাড়া করে থাকতেও শুরু করেন। বিষয়টি গোপন থাকেনি স্ত্রী কাছে। কানে খবর যেতেই স্বামীকে এনিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন তিনি। আর তাতেই জোর বিবাদ হয় দম্পতির মধ্যে। তারপরই তালাক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন অভিযুক্ত যুবক। তবে নাবালিকাকে বিয়ে করায় পুলিশি বিপাকেও পড়তে হয়েছে তাঁকে।

[আরও পড়ুন: দু’দিন ধরে জ্বলছে বাংলাদেশের সুন্দরবন, বিপন্নতা বাড়ছে ম্যানগ্রোভের বন্যপ্রাণীদের]

গোটা ঘটনার কথা স্বীকার করে যুবক বলেন, “প্রথম স্ত্রীকে নিয়ে আট মাসের মতো সংসার করেছি। কয়েক দিন আগে ওকে তালাক দিয়ে ওর ছোট বোনকে বিয়ে করেছি।” কাজিরচর ইউনিয়ন নিকাহ রেজিস্ট্রার কাজি নূর শরীফ জানান, ওই যুবক গত ২৫ এপ্রিল প্রথম স্ত্রীকে খোলা তালাক প্রদান করেছিলেন। আর ২৯ এপ্রিল তারই ছোট বোনকে বিয়ে করেন। কাজিরচর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মন্টু বিশ্বাস বলেন, বড় বোনের খোলা তালাক রেজিস্ট্রি করার চারদিনের মাথাতেই নাবালিকা ছোট বোনকে বিয়ে করা যুক্তিসঙ্গত নয়। বিষয়টি নিকাহ রেজিস্ট্রারের কাছে জানতে চাওয়া হবে। মুলাদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাকসুদুর রহমান জানান, নাবালিকা স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

[আরও পড়ুন: ‘পশ্চিমবঙ্গে যেই ক্ষমতায় থাকুক সুসম্পর্ক থাকবে’, বার্তা বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রীর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement