×

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধ করে সন্ত্রাসমুক্ত বাংলাদেশ তৈরি করার দায়িত্ব নিতে হবে পুলিশ আধিকারিকদের৷ সোমবার সকালে ঢাকার রাজবাগ পুলিশ লাইন মাঠে ‘পুলিশ সপ্তাহ ২০১৯’ অনুষ্ঠানে এসে এমনই বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ যেকোনও পরিস্থিতিতে দেশবাসীকে রক্ষা করাই যে পুলিশের মূল লক্ষ্য তাও এদিন সাফ জানিয়ে দেন তিনি৷

[ভারতে যাচ্ছিল কলম্বোয় বাজেয়াপ্ত কোকেন, জেরায় জানাল ধৃত বাংলাদেশিরা]

অন্যান্য বছরের মতো এবার পুলিশ সপ্তাহ উদযাপন করা হয় ঢাকার রাজারবাগে৷ এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিক এবং কর্মীরা৷ অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও৷ মঞ্চ থেকে সাহসিকতার জন্য ৩৪৯ জনের হাতে পুরস্কার তুলে দেন তিনি৷ দেশবাসীর স্বার্থে যে সবসময় পুলিশ আধিকারিকদের কাজ করতে হবে, তা এদিনের অনুষ্ঠানে বারবার মনে করিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী৷ তিনি বলেন, ‘‘দেশের সাধারণ মানুষের সঙ্গে পুলিশের সুস্থ সম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে৷ কাউকেই হেনস্তা করা যাবে না৷ মনে রাখতে হবে নাগরিকদের শান্তিতে রাখাই পুলিশের প্রধান কাজ৷ দেশের শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখার প্রয়োজনে সবসময় তৎপর থাকতে হবে পুলিশ আধিকারিকদের৷’’ বাংলাদেশে মাদক বিরোধী আন্দোলন সবসময়ই জারি রয়েছে৷ এদিনের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ারও ডাক দেন শেখ হাসিনা৷ তিনি বলেন, ‘‘পুলিশকে মাদক নির্মূল অভিযান জারি রাখতে হবে৷’’ দেশে দুর্ঘটনায় প্রাণহানির সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে৷ এদিন এই বিষয়টিতেও উদ্বেগ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী৷ তিনি বলেন, ‘‘পথ নিরাপত্তার বিষয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে হবে৷ সচেতনতা বাড়লে দুর্ঘটনা হার কমানো সম্ভব৷’’

[সাংবাদিককে হত্যার পরিকল্পনা আনসার টিমের, পুলিশি সক্রিয়তায় বানচাল ছক]

পদকজয়ী পুলিশ আধিকারিকদের এদিন শুভেচ্ছাও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদও এদিন তাঁদের অভিনন্দন জানান৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং