১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আজ প্রাথমিকের TET, অতিরিক্ত বাস-ট্রেন না চলায় চরম ভোগান্তির আশঙ্কা পরীক্ষার্থীদের

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 31, 2021 8:32 am|    Updated: January 31, 2021 1:46 pm

2.5 lakh job seekers appearing for primary TET worried over lack of Transport | Sangbad Pratidin

কলহার মুখোপাধ্যায়, বিধাননগর: আজ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা বা TET-এ বসতে চলেছে রাজ্যের আড়াই লক্ষেরও বেশি পরীক্ষার্থী। রবিবার অন্যান্য দিনের তুলনায় কমসংখ্যক ট্রেন চলাচল করে। এর ফলে বিভিন্ন জেলার বহু প্রার্থীর সমস্যায় পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে অনুমান করছেন পরীক্ষার্থীরা। দুপুর বারোটার মধ্যে পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশের নির্দেশ দিয়েছে ওয়েস্ট বেঙ্গল বোর্ড অফ প্রাইমারি এডুকেশন। কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেন্দ্রে ঢোকার জন্য অতিরিক্ত সময় হাতে রাখার ব্যবস্থা হয়েছে বলে বোর্ড সূত্রে খবর।

অন্যদিকে, পরীক্ষার জন্য রাজ্যে অতিরিক্ত বিশেষ ট্রেন এবং বাস চালানোর কোনও পরিকল্পনার কথা শনিবার রাত পর্যন্ত পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন অনেক পরীক্ষার্থী। পূর্ব রেল দপ্তর সূত্রে খবর, বিশেষ পরীক্ষা উপলক্ষে বিশেষ ট্রেন চালানোর কোনও অনুরোধ আসেনি। ফলে অতিরিক্ত ট্রেন চালানোর কোনও পরিকল্পনা নেওয়া হয়নি। পরীক্ষার্থীদের বক্তব্য, পূর্ব অভিজ্ঞতায় দেখা গিয়েছে রবিবার অন্যান্য দিনের তুলনায় কম সংখ্যক ট্রেন চলাচল করে। তার উপর কোভিড পরিস্থিতিতে কয়েকটি জেলায় কিছু ট্রেন অনিয়মিত। যার ফলে এদিন পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছতে চূড়ান্ত ভোগান্তি হতে পারে বলে মনে করছেন প্রত্যন্ত এলাকার বহু পরীক্ষার্থী।

[আরও পড়ুন : একুশের লড়াইয়ে বাড়তি নজর উত্তরবঙ্গে, জমি পুনরুদ্ধারে নতুন মুখই ভরসা তৃণমূলের]

পাশাপাশি জেলাতে বিশেষ বা অতিরিক্ত বাস চালানোর কোনও খবরও শনিবার রাত পর্যন্ত পরীক্ষার্থীদের কানে আসেনি। সব মিলিয়ে নির্ধারিত সূচি মেনে কেন্দ্রে ঢোকার ক্ষেত্রে ঘোর অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে বলে বক্তব্য পরীক্ষার্থীদের। টেট পরীক্ষার্থী এবং ডিএলএড মঞ্চের আহ্বায়ক কৃষ্ণেন্দু দেবেব বক্তব্য, “সবদিক বিচার করে ব্যতিক্রমী ক্ষেত্রে পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশের নিয়ম শিথিল করার আবেদন জানাচ্ছি। বোর্ড সংবেদনশীলতার সঙ্গে বিষয়টি বিবেচনা করুক। এই আবেদন রাখছি।”

পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস ঠেকাতে কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছে পর্ষদ। পরীক্ষার্থীরা তো বটেই, পরিদর্শকদেরও মোবাইল সংক্রান্ত বিধিনিষেধের আওতার মধ্যে থাকতে হবে। এর পাশাপাশি পরীক্ষার্থীদের জন্য বেশ কয়েকটি নিয়ম জারি করা হয়েছে। কেন্দ্রে মোবাইল নিয়ে ঢুকতে পারবেন না তাঁরা। এছাড়া ক্যালকুলেটর বা কোনও রকম ইলেকট্রনিক গ্যাজেট নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশ করা যাবে না। যদি কারও কাছে এরকম কোনও জিনিস পাওয়া যায় তাহলে তাঁর পরীক্ষা বাতিল করে দেওয়ার উল্লেখও রয়েছে নির্দেশিকাতে। এছাড়া কোনও ধরনের ব্যাগ নিয়েও প্রবেশ নিষেধ কেন্দ্রে। কালো কালির বল পয়েন্ট পেন দিয়ে পরীক্ষা দিতে হবে।

[আরও পড়ুন : ফের পাঁচিল নির্মাণে বাধার মুখে বিশ্বভারতী, ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভে কাজ রুখে দিল পুরসভা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে