৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: ভাইজ্যাগের তেলবাহী জাহাজে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় জখম হয়েছিলেন তিনি৷ ঘটনার ন’দিন পর জীবনযুদ্ধে হার মানলেন বাংলার শ্রমিক৷ কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর৷ দক্ষিণ ২৪ পরগনার নুরপুরের কোম্পানি পুকুরের বাসিন্দার মৃত্যুতে চোখের জলে ভাসছে গোটা গ্রাম৷ 

[আরও পড়ুন: সার্থক ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচি, স্থানীয়দের সমস্যা শুনতে পঞ্চায়েতেই বসবেন বিডিও]

গত ১২ আগস্ট বিশাখাপত্তনমের ভাইজ্যাগে তেলবাহী ভারতীয় জাহাজ জাগুয়ারে আগুন লাগে। জাহাজে মোট ৩০ জন কর্মী ছিলেন। তাঁদের মধ্যে গুরুতর আহত হন এ রাজ্যের দু’জন। তাঁদের একজন দক্ষিণ ২৪ পরগনার রামনগর থানার নুরপুরের কোম্পানি পুকুরের বাসিন্দা আনসারুল হক। বছর চৌত্রিশের আনসারুলকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভাইজ্যাগের একটি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। হাসপাতালে ভরতি থাকাকালীনই চিকিৎসায় বিশেষ সাড়া দিচ্ছিলেন না তিনি৷ দিন যত যাচ্ছিল, ততই অবস্থার অবনতি হচ্ছিল তাঁর৷ দিন দুয়েক আগে তাঁকে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়৷ তবে বুধবার সকালে সব শেষ৷ জীবনযুদ্ধে হার মানেন আনসারুল৷ ওই হাসপাতালেই তাঁর মৃত্যু হয়।

[আরও পড়ুন: সদস্য সংগ্রহে বড় সাফল্য বিজেপির, পুরুলিয়া ও পশ্চিম মেদিনীপুরে সংখ্যা ছাড়াল ৮ লক্ষ]

দুপুরের পর তাঁর মরদেহ নুরপুরের বাড়িতে পৌঁছায়৷ আনসারুলকে শেষ দেখা দেখতে ভিড় জমান গোটা গ্রামের বাসিন্দা৷ কান্নায় ভেঙে পড়েন আত্মীয়-পরিজন, প্রতিবেশীরা।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং