BREAKING NEWS

১ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ১৬ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জের, স্ত্রীর প্রেমিককে খুন করে পুঁতে দিল স্বামী! চাঞ্চল্য মন্তেশ্বরে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 26, 2021 8:06 pm|    Updated: May 26, 2021 8:40 pm

A couple allegedly murdered a youth in Purba Bardhaman | Sangbad Pratidin

ছবি: ফাইল

অভিষেক চৌধুরী, কালনা: বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন স্ত্রী। সেই আক্রোশে স্ত্রীর প্রেমিককে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের (Purba Bardhaman) মন্তেশ্বরে। ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত যুবক ও তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধৃতদের থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পূ্র্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বর থানার ধামাচিয়া শিয়ালমারার বাসিন্দা মৃত ফিলিমান হাঁসদা। দিন আটেক আগে পিপলন বনপুরের বাসিন্দাদের সঙ্গে কাজে যান তিনি। এরপর আর ফেরেননি। স্থানীয়দের কাছে খোঁজ খবর করেও ছেলের হদিশ পাননি পরিবারের সদস্যরা। তবে এলাকারই বাসিন্দা এক দম্পতি আরতি মুর্মু ও সাইমন হাঁসদার কাছে ছেলের খোঁজ করার পরই সন্দেহ দানা বাঁধে মৃতের পরিবারের সদস্যদের মনে। এরপরই মঙ্গলবার রাতে ওই দম্পতির বিরুদ্ধে মন্তেশ্বর থানায় খুনের অভিযোগ করে তাঁরা। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার আরতি ও সাইমনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদের জেরা করতেই প্রকাশ্যে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

[আরও পড়ুন: Yaas: বিপদ কাটল কলকাতার, আগামী দু’দিন জেলায়-জেলায় বৃষ্টি, জানাল হাওয়া অফিস]

জানা গিয়েছে, ফিলিমানের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিল আরতি। পরে তা জেনে যায় সাইমন। তা নিয়ে শুরু হয় অশান্তি। সেই আক্রোশেই ফিলিমানকে খুন করে সাইমন। তাকে মদত দেয় আরতি। খুনের পর বনপুর থেকে ২ কিলোমিটার দূরে একটি মাঠে ফিলিমানের দেহ পুঁতে দেয় অভিযুক্তরা। ওই দম্পতির থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। এবিষয়ে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ধ্রুব দাস বলেন, “দেহ লোপাটের অভিযোগ উঠেছিল। ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের আগামিকাল আদালতে তোলা হলে পুলিশ হেফাজতে রাখার আবেদন করা হবে।”

[আরও পড়ুন: ‘যশে’র দাপটে বিপর্যস্ত রাজ্যের ১ কোটি মানুষ, শুক্রবার ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement