৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

শংকরকুমার রায়, রায়গঞ্জ: বন্ধ ঘরের ভিতর আগুন জ্বালিয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় এক বৃদ্ধকে খুন করল দুষ্কৃতীরা। গুরুতর জখম তাঁর স্ত্রী এবং মেয়ে। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের চাকুলিয়ার নিজামপুর ২ নম্বর পঞ্চায়েতের খোকসা গ্রামে।

বছর ষাটের মৃত আইনুল হক পেশায় কৃষক। মঙ্গলবার গভীররাতে স্ত্রী এবং মেয়েকে নিয়ে নিজের ঘরে ঘুমোচ্ছিলেন তিনি। অভিযোগ, সেই সময় পাইপ ঢুকিয়ে বাইরের থেকে গ্যাস ঘরে ছেড়ে দেওয়া হয়। দরজায় ঝুলিয়ে দেওয়া হয় বৈদ্যুতিন তার। এরপর লাগিয়ে দেওয়া হয় আগুন। বন্ধ ঘরে ঘুমন্ত অবস্থা আগুনে প্রায় ঝলসে যান তাঁরা। খবর পেয়ে চাকুলিয়া থানা ও কানকি ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। আগুনে দগ্ধ মৃত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালের পাঠায় পুলিশ। বুধবার ঘটনা জানাজানি হতেই তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়।অগ্নিদগ্ধ হয়ে বিহারের পূর্ণিয়ার হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন গুরুতর জখম মা ও মেয়ে। মৃত পরিবারের তরফে চাকুলিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: দিল্লির দূষণকে টপকে গেল বর্ধমান-আসানসোল, আশ্চর্যজনকভাবে ভাল বাতাস দুর্গাপুরে]

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, পরিকল্পিতভাবে ওই পরিবারের সকলকে খুনের চেষ্টা করে দুষ্কৃতীরা। খবর পেয়ে খোকসা গ্রামে এসে স্থানীয় বিধায়ক ফরওয়ার্ড ব্লকের আনি ইমরান রমজ( ভিক্টর) বলেন,“যেভাবে বাইরে থেকে গ্যাস সিলিন্ডারের পাইপ ঢুকিয়ে আগুন লাগানো হয়েছে তাতেই স্পষ্ট দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পনা করে ওই গোটা পরিবারের সদস্যের খুন করার চক্রান্ত করা হয়েছিল।” বিধায়কের দাবি, পুলিশ অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেপ্তার না করলে তীব্র আন্দোলন করা হবে। তবে ইসলামপুর পুলিশ সুপার সচিন মক্কার অবশ্য বলেন,“ওই ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। মূল অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং