BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ICU-তে ভরতি নিতে ‘নারাজ’ হাসপাতাল, জ্বর-শ্বাসকষ্টে মৃত্যু খড়গ্রামের তৃণমূল ব্লক সভাপতির

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 13, 2020 12:23 pm|    Updated: August 13, 2020 12:23 pm

An Images

কল্যাণ চন্দ ও চন্দ্রজিৎ মজুমদার: ভরতি নিয়ে অশান্তি, পরিবারের ৪ সদস্যের গ্রেপ্তারির ঘটনার কয়েকঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যু হল মুর্শিদাবাদের (Murshidabad) খড়গ্রামের তৃণমূল ব্লক সভাপতি মফিজউদ্দিন মণ্ডলের। বৃহস্পতিবার সকালেই দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গোটা ঘটনাটি রাজ্য সরকারকে জানাবেন বলে জানিয়েছেন মৃতের স্ত্রী।

জানা গিয়েছে, কয়েকদিন ধরেই জ্বরে ভুগছিলেন খড়গ্রামের তৃণমূল ব্লক সভাপতি তথা মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদের বন বিভাগের কর্মাধ্যক্ষ মফিজউদ্দিন মণ্ডল। সঙ্গে শ্বাসকষ্টও ছিল। বুধবার মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। সেখানকার ডাক্তাররা পরীক্ষার পর তৃণমূল নেতাকে সারি হাসপাতালে রেফার করেন। কিন্তু পরিবারের সদস্যরা বহরমপুরের কোভিড হাসপাতালে নিয়ে যায় তাঁকে। দাবি করা হয় যে, তখনই আইসিইউতে ভরতি করাতে হবে মফিজউদ্দিনকে। কিন্তু চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন সেই মুহূর্তে ওই তৃণমূল নেতাকে আইসিইউতে ভরতির প্রয়োজন নেই। এরপর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়ায় রোগীর পরিবার। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মফিজউদ্দিনের পরিবারের ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে।

[আরও পড়ুন: রাতে জঙ্গলে করোনায় মৃতদেহ সৎকারের উদ্যোগ, জনতা-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধে উত্তপ্ত জয়পুর]

এই ঘটনার পরের দিন, বৃহস্পতিবার ভোরে হাসপাতালেই মৃত্যু হয় ওই তৃণমূল নেতার। মৃতের স্ত্রীর কথায়, ” হাসপাতালের বিরুদ্ধে এখন কিছু বলব না। যা জানানোর মু্খ্যমন্ত্রীকে জানাবো।” জানা গিয়েছে, পরিবারের সদস্যরা করোনা সন্দেহে করলেও আক্রান্ত ছিলেন না ওই তৃণমূল নেতা। প্রাথমিক পরীক্ষার পর হাসপাতালের এমনটাই জানানো হয়েছিল বলেই দাবি পরিবারের। প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন ধরেই শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন ওই তৃণমূল নেতা। একাধিকবার ভেলোরেও গিয়েছিলেন চিকিতসার জন্য।

[আরও পড়ুন: করোনা কাঁটায় এপ্রিল থেকে রাজ্যে অমিল বিধায়ক তহবিলের টাকা, থমকে উন্নয়নের কাজ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement