BREAKING NEWS

১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘সবাইকে বাঁচাতে পারলাম না’, হড়পা বানে তলিয়ে যাওয়া ৮ জনকে উদ্ধার করেও আক্ষেপ মহম্মদ মানিকের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 7, 2022 9:11 am|    Updated: October 7, 2022 1:41 pm

A youth of Malbazar rescued 8 people in Malbazar flash flood case | Sangbad Pratidin

শান্তনু কর, জলপাইগুড়ি: বিপদের মুখে পড়ে পিঠ দেখিয়ে পালিয়ে যাননি। উলটে মালবাজারের মাল নদীতে ঝাঁপিয়ে দশ জনের প্রান বাঁচিয়েছেন। আর তাতেই এখন হিরো মালবাজারের (Malbazar) তেসিমলা গ্রামের মহম্মদ মানিক।

দশমীর (Durga Puja 2022) রাতে মাল নদীতে প্রতিমা ভাসান দেখতে গিয়েছিলেন কয়েক হাজার মানুষ। এসেছিলেন তেসিমলা গ্রামের মহম্মদ মানিকও। আচমকা আসে হড়পা বান। ভেসে যান ভাসান দেখতে যাওয়া বহু মানুষ। মুহূর্তে চোখের সামনে বদলে যায় পরিস্থিতি। নদীর পারে একটি উঁচু জায়গায় বন্ধুদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে ছিলেন মানিক। চোখের সামনে বিপদ দেখে মুখ ফিরিয়ে চলে যেতে পারেননি তিনি। নিজের ফোনটি বন্ধুর হাতে ধরিয়ে সটান ঝাঁপ দেন নদীতে।

[আরও পড়ুন: পুজোর ভিড়ে তারস্বরে ভেঁপু বাজিয়ে বিপত্তি, ২ যুবককে অভিনব শাস্তি পুলিশের, ভাইরাল ভিডিও]

প্রত্যক্ষ দর্শীরা জানান, প্রায় পনেরো ফুট উঁচু থেকে ঝাঁপ দিয়ে আটজনকে উদ্ধার করে পারে নিয়ে আসেন মানিক। ঘটনায় নিজেও আহত হন। মাল সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে চিকিৎসা চলে। বৃহস্পতিবার মানিকের এই সাহসিকতার গল্প ছড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন মাধ্যমে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর ছবি দিয়ে প্রশংসাও করেন অনেকেই। প্রতিবেশী বাবু প্রধান জানান, মানুষের বিপদ দেখলেই ঝাঁপিয়ে পড়ে মানিক। গ্রামে রক্তদান শিবির হলেই এক ডাকে মানিককে পাওয়া যায়।

কিন্তু তবে এই মুহুর্তে নিজের প্রশংসা শুনতে ভাল লাগছে না মানিকের। তিনি বলেন, “চোখের সামনে মানুষ গুলোকে ভেসে যেতে দেখলাম। যাদের পেরেছি পাড়ে তুলেছি। যাদের পারিনি তাদের হারানোর যন্ত্রণা ভুলতে পারছি না।” ভবিষ্যতে এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনা না ঘটুক এই প্রার্থনাই জানায় মানিক।

[আরও পড়ুন: মাল নদীতে হড়পা বানে প্রাণহানি: ‘যথেষ্ট ব্যবস্থা ছিল’, গাফিলতির অভিযোগ খারিজ পুলিশ সুপারের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে