BREAKING NEWS

১৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

সমঝোতা ভেস্তে যাওয়ার পর চূড়ান্ত কংগ্রেসের প্রথম প্রার্থীতালিকা, নাম থাকছে দীপার

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 18, 2019 9:38 pm|    Updated: March 18, 2019 9:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বামেদের সঙ্গে জোটবার্তা ভেস্তে যাওয়ার পরই প্রথম পর্যায়ের প্রার্থীতালিকা চূড়ান্ত করে ফেলেছে কংগ্রেস। দিল্লিতে হাইকম্যান্ডের সঙ্গে বৈঠকের পর প্রথম পর্যায়ের প্রার্থীতালিকা কার্যত প্রস্তুত। দ্রুত ঘোষণা করা হবে প্রার্থীদের নাম। সূত্রের খবর, আপাতত শুধু প্রথম তিন দফার ভোটের জন্য প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করা হবে। তালিকায় নাম রয়েছে দীপা দাশমুন্সিরও। যে দুটি আসন নিয়ে প্রাথমিক জট শুরু হয়েছিল, সেই দুটি আসন অর্থাৎ রায়গঞ্জ এবং মুর্শিদাবাদেও প্রার্থী দেবে কংগ্রেস।

[ভাটপাড়া পুরসভায় অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনছে তৃণমূল]

হাত শিবিরের প্রাথমিক প্রার্থীতালিকা কার্যত চমকহীন। প্রথম দফায় দুই আসন অর্থাৎ কোচবিহার এবং আলিপুরদুয়ারে কংগ্রেসের সম্ভাব্য প্রার্থী পিয়া রায়চৌধুরি এবং মোহনলাল বসুমাতারি। জলপাইগুড়ি আসনে কংগ্রেসের টিকিটে লড়বেন মণি ডারনাল। দার্জিলিংয়ে প্রার্থী হচ্ছেন বিধায়ক তথা প্রদেশ কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি শংকর মালাকার। এ বিষয়ে উল্লেখ্য, বামেদের সঙ্গে জোটবার্তা চলাকালীন অগ্রণী ভূমিকায় ছিলেন শংকর। কিন্তু, জোট ভেস্তে যাওয়ায় প্রার্থী হচ্ছেন তিনিও। এরপরই বিতর্কিত আসন রায়গঞ্জ। প্রত্যাশামতোই রায়গঞ্জ আসনে প্রার্থী হচ্ছেন দীপা দাশমুন্সি। বামেদের সঙ্গে সমঝোতা বার্তা চলাকালীন রায়গঞ্জ আসনটি হাতছাড়া হতে বসেছিল দীপার। জোটবার্তা ভেস্তানোর পিছনে প্রিয়-জায়ার বড় ভূমিকা আছে বলেও মনে করছেন অনেকে। উল্লেখ্য, নাম ঘোষণার আগেই অবশ্য রায়গঞ্জে দীপার নামে প্রচার শুরু করেছেন কংগ্রেস কর্মীরা। বালুরঘাট আসনে কংগ্রেসের প্রার্থী হচ্ছেন সাবেক সরকার। মালদহ উত্তরে গতবারের জেতা প্রার্থী মৌসম নূর তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় নতুন প্রার্থী খুঁজতে হয়েছে প্রদেশ নেতাদের। এই আসনটিতে প্রার্থী হতে পারেন মৌসমেরই ভাই ইশা খান চৌধুরি। মালদহ দক্ষিণে যথারীতি প্রার্থী হবেন আবু হাসেম খান চৌধুরি। বামেদের হাতে থাকা অপর আসন মুর্শিদাবাদেও প্রার্থী দেবে কংগ্রেস। ওই আসনটিতে দাঁড়াতে পারেন মুর্শিদাবাদ জেলা কংগ্রেসের সভাপতি আবু হেনা।

[হিন্দি বলয়ে জনসংযোগে হোলিই হাতিয়ার তৃণমূলের]

আপাতত এই কয়েকটি আসনেরই প্রার্থী ঘোষণা হতে পারে। তবে, বহরমপুরে অধীর চৌধুরি এবং জঙ্গিপুরে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়ের প্রার্থী হওয়াও কার্যত নিশ্চিত। এদিকে, পুরুলিয়ায় ইতিমধ্যেই নেপাল মাহাতোর নামে দেওয়াল লিখন শুরু করেছে। এদিকে, জোট ভাঙা নিয়ে টানাপোড়েন অব্যাহত। কংগ্রেস ইতিমধ্যেই দায় চাপিয়েছে বামেদের ঘাড়ে। বামেদের মনোভাবের কারণেই সমঝোতা ভেস্তে গেল বলে দাবি কংগ্রেস নেতাদের। অন্যদিকে, আসন সমঝোতার প্রস্তাব ভেস্তে যাওয়ায় নিজেদের মতো করে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে বামেরাও। ইতিমধ্যেই নিজেদের মধ্যে বৈঠক সেরে ফেলেছন বাম নেতারা।তবে, সূত্রের খবর এখনও জোটের আশা ছাড়েনি বামেরা। ফ্রন্টের তরফে জানানো হয়েছে, এখনই বাকি ১৭ আসনে প্রার্থী ঘোষণা করবে না তাঁরা।

An Images
An Images
An Images An Images