২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  বুধবার ১০ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চৌকিদারের পালটা আগলদার, বিধানসভার প্রস্তুতিতে নয়া দাওয়াই অনুব্রতর

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: June 8, 2019 7:47 pm|    Updated: August 7, 2021 12:16 pm

Agaldar for Chowkidar! new election strategy by Anubrata Mandal

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: চৌকিদারের পালটা আগলদার। বিধানসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করে দিলেন অনুব্রত। যেখানে পিছিয়ে তৃণমূল, সেখানে আগলদার বসবে। এই পদ্ধতিতে যদি তাঁর অনুমান না খাটে তাহলে ফের রাজনীতি ছাড়ার কথা ঘোষণা করলেন তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। এজন্য এখন থেকেই জেলার প্রতিটি কেন্দ্রে আগলদার বসানোর কাজ শুরু করেছেন বলে জানান। হুমকি দিয়েছেন বিজেপিকে। তবে যাকে সামনে রেখে এই প্রতিবাদ সভা সেই নিহত নির্মল কুণ্ডুর নাম মুখে এদিনের সভায় একবারও নেননি জেলা সভাপতি।

শুক্রবার সাঁইথিয়ার জনসভা থেকে ‘লীলা’ করার কথা বলেছিলেন জেলার কেষ্ট ওরফে অনুব্রত মণ্ডল। শনিবার বললেন আগলদার বসানোর কথা। তাতে তাঁর অনুমান মিলবে বলেই তিনি আশাবাদী। লোকসভা নির্বাচনের আগে তাঁর অনুমান না মিললে রাজনীতি ছাড়বেন বলে ঘোষণা করেছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। কখনও বলেছিলেন, ৪২-এ ৪২ না হলে দল ছেড়ে দেবেন। রাজনীতি করবেন না। আবার আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় জিতলে দল ছেড়ে দেব। তারাপীঠে পুজো দিয়ে অনুব্রত বলেছিলেন, মা তারা বলেছেন ৪২-এ ৪২ পাব। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনে তাঁর কথা না খাটায় তাঁর স্বীকারোক্তি ছিল রাজনীতিতে অনেক কিছু বলতে হয়। সেই রাজনীতিক অনুব্রত মণ্ডল ফের দল ও রাজনীতি ছাড়ার কথা ঘোষণা করলেন।

শনিবার বিকেলে মুরারইয়ের ভাদিশ্বরে নিহত নির্মল কুণ্ডুর হত্যার প্রতিবাদে সভার আয়োজন করে তৃণমূল। সভায় উপস্থিত ছিলেন চন্দ্রনাথ সিনহা, বোলপুরের সাংসদ অসিত মাল, বিধায়ক আবদুর রহমান-সহ অনেকে। সভা শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বীরভূমে ১১টি আসন তৃণমূল জিততে না পারলে দল ছেড়ে দেব। সেই সঙ্গে দায়িত্বে থাকা বর্ধমানের চারটি এবং মুর্শিদাবাদের তিনটি আসন জিততে না পারলে দল করব না চ্যালেঞ্জ করে গেলাম”। আগে তাঁকে কথা দেওয়া মা তারা কি প্রতারণা করেছেন এবার? প্রশ্নের উত্তরে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “সিপিএমের ভোট চলে গিয়েছে বিজেপিতে। তাই এরকম ফলাফল হয়েছে”। এরপরেই হার নিয়ে ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, “বীরভূম লোকসভায় চারটি এবং বোলপুর লোকসভায় একটি বিধানসভায় পিছিয়ে থাকলেও বিধানসভা নির্বাচনের আগে তা পুনরুদ্ধার করব”।

তাঁর যুক্তি “লোকসভা নির্বাচনে আগলদার ছিল না। তাই ছাগলে ধান খেয়ে গিয়েছে। তবে বিধানসভা নির্বাচনে আগলদার সজাগ থাকবে”। এদিনও নাম না করে বিজেপিকে হুমকি দিয়ে বলেন, “দল করছেন করুণ। উলটোপালটা করলে আমরা ছেড়ে কথা বলব না”।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে