BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মেলার মাঠে ‘দেহব্যবসা’! বিশ্বভারতীর উপাচার্যের সুরেই বিস্ফোরক অভিযোগ অগ্নিমিত্রা পলের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: August 28, 2020 7:45 pm|    Updated: August 28, 2020 8:27 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বভারতীতে (Vishva Bharati) পাঁচিল কাণ্ড নিয়ে এবার বিতর্ক আরও উসকে দিলেন বিজেপি মহিলা মোর্চা সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর সঙ্গে দেখা করার পর তাঁর সুরেই মেলার মাঠে অনৈতিক কাজকর্ম চলে বলে বিস্ফোরক অভিযোগ তুলেছেন বিজেপির মহিলা মোর্চা সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। বলেছেন, ”পৌষমেলার সময়ে এখানে সেক্স ব়্যাকেট চলে। তাই পাঁচিল উঠলে কিছু মানুষের সমস্যা তো হবেই।” তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে ফের শান্তিনিকেতনবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

শুক্রবার শান্তিনিকেতন যান অগ্নিমিত্রা পল (Agnimitra Paul)। উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করে, কথাবার্তা বলার পর মেলার মাঠটি ঘুরে দেখেন তিনি। পাঁচিল তৈরির কাজ যেখানে চলছিল, সেখানেও ঘুরে দেখেন। এরপরই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ তোলেন বিজেপি মহিলা মোর্চা সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা। বলেন, ”আড়ালে দেহব্যবসার জন্য এই জায়গাকে বেছে নিয়েছেন কয়েকজন ছাত্রছাত্রী। তৃণমূল নেতাদের মদতে পৌষমেলার সময়ে এখানে এসব অসামাজিক কার্যকলাপ চলে। তাই এখানে পাঁচিল উঠলে অসুবিধা তো হবেই। আর পাঁচিল উঠবে নাই বা কেন? পরিবেশ আদালত এবং কেন্দ্রের অনুমতিতে ফেব্রুয়ারিতে এখানে পাঁচিল তোলার কাজ শুরু হত। তা পিছিয়ে ১৫ আগস্টের মতো শুভ দিনে কাজ শুরু হয়েছে। এই ঘটনায় সিবিআই তদন্ত চাই। প্রধানমন্ত্রীর কাছে সেই আবেদন করব আমরা। এটা কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়। সব সিদ্ধান্ত কেন্দ্র নেবে।”

[আরও পড়ুন: পৌষমেলা হচ্ছেই, পাঁচিল ভাঙা বিতর্কের মধ্যেই ঘোষণা বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের]

এর আগে পাঁচিল নিয়ে নজিরবিহীন বিক্ষোভের মুখে পড়ে বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীও একই অভিযোগ তুলেছিলেন। তিনিও এই মেলার মাঠে ‘সেক্স ব়্যাকেট’ চলে বলে অভিযোগের সরব হন। তাঁর এই মন্তব্যে তোলপাড় পড়ে যায়। এহেন মন্তব্যের জন্য তাঁকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি তোলেন প্রাক্তনীরা। এবার অগ্নিমিত্রা পলও সেই একই ধরনের অসংবেদনশীল মন্তব্য করে বসলেন। একইসঙ্গে মেলায় স্টলের জন্য তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে ‘কাটমানি’র অভিযোগও তোলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: আশুতোষের পর এবার বজবজ কলেজের মেধা তালিকায়ও সানি লিওনের নাম!]

এ নিয়ে জেলার তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের স্পষ্ট বক্তব্য, ”ওখানে শুধুমাত্র পডু়য়াদেরই যাতায়াত আছে শুধুমাত্র। কোনও অসামাজিক কাজকর্মের প্রশ্ন ওঠে না। বিশ্বভারতীতে যা হয়েছে, তার দায় শুধুই বিশ্বভারতীর।উপাচার্য বিশ্বভারতীর আদর্শ সম্বন্ধে কিছু জানেন না। মেলায় স্টল বসাতে তৃণমূল নয়, উপাচার্য কাটমানি খান। উনি ১০০ শতাংশ বিজেপির সঙ্গে যুক্ত।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement