১৭  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা, সুইসাইড নোট লিখে আত্মঘাতী বৃদ্ধ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 4, 2020 8:55 am|    Updated: April 4, 2020 8:55 am

An elderly man commits suicide suspecting he is corona infected

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য: শরীরে বাসা বেঁধেছে মারণ ভাইরাস, স্রেফ এই আতঙ্কে আত্মঘাতী হলেন অশীতিপর এক বৃদ্ধ। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতের নবপল্লির বলাকা অ্যাভিনিউ এলাকায়। দেহের পাশ থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি সুইসাইড নোট। পুলিশ সূত্রে খবর, সেখানে স্পষ্টভাবে আত্মহত্যার কারণ হিসেবে করোনা (Corona Virus) সংক্রমণের আশঙ্কার কথা লেখা রয়েছে।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই বয়সজনিত অসুখে ভুগছিলেন নিতাই ঘোষ চৌধুরি নামে ওই বৃদ্ধ। নিয়মিত ওষুধও খেতেন তিনি। প্রতিবেশীদের কথায়, বিগত কয়েকদিন যাবৎ অদ্ভুত আচরণ করছিলেন তিনি। পরিবারের লোকেদের দাবি, ওই বৃদ্ধ আশঙ্কা করছিলেন তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সেই কারণে পরিবারের লোকেদের নিজের কাছে ঘেঁষতে দিচ্ছিলেন না তিনি। আলাদা ঘরে থাকছিলেন। শুক্রবার ভোররাতে তাঁর ঘর থেকে গোঙানির আওয়াজ পেয়ে পরিবারের লোকজন ছুটে যান। এরপর তাঁকে বারাসত জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। মৃতের ছেলে তিলক ঘোষ চৌধুরি বলেন, “বাবা এমনিতেই অসুস্থ ছিলেন।” প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, বাড়িতে রাখা উইপোকা মারার বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন ওই বৃদ্ধ।

[আরও পড়ুন:  লকডাউনের মধ্যেই নতুন আতঙ্ক, মাওবাদী পোস্টার পড়ল পুরুলিয়ায়]

পুলিশ সূত্রে খবর, দেহের পাশ থেকে সিপিএমের প্যাডে লেখা একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়েছে। তাতে লেখাই ছিল যে, করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে ওই নোটে পরিবার ও প্রতিবেশীদের সাবধান হওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন বৃদ্ধ। সতর্ক করেছেন সকলকে। তবে আদৌ সুইসাইড নোটটি বৃদ্ধেরই লেখা তো? ঘটনার পিছনে অন্য কোনও রহস্য রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। প্রসঙ্গত, করোনা আতঙ্ক কম বেশি জাঁকিয়ে বসেছে অধিকাংশের মনেই। মারণ ভাইরাসকে প্রতিহত করতে তাই কমবেশি সকলেই কিছু না সতর্কতা অবলম্বন করছেন। 

[আরও পড়ুন:  করোনা মোকাবিলায় শামিল, ভাঁড় ভেঙে মুখ্যমন্ত্রীর তহবিলে আর্থিক সাহায্য ভাইবোনের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে