৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়: বাবুল সুপ্রিয়র গলায় রাজ্য বিজেপি থিম সং নিয়ে যখন বিতর্ক তুঙ্গে, তখন হাওড়ায় তৃণমূল প্রার্থীর সমর্থনে গান গেয়ে শোরগোল ফেলে দিয়েছেন এক যুবক। ভোটপ্রচারে ব্যবহার তো হচ্ছেই, সোশ্যাল মিডিয়াতেও গানটি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

[ আরও পড়ুন: নির্বাচনী উত্তাপে রাম নবমীতে অস্ত্র মিছিলের ইঙ্গিত দিলীপ ঘোষের]

এবারের লোকসভা ভোটে হাওড়া সদর কেন্দ্রে বিদায়ী সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়কেই প্রার্থী করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর তাঁর সমর্থনে যিনি গান গেয়েছেন, তাঁর নামও প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। গায়ক প্রসূনের বাড়ি হাওড়ারই দাসনগরের বালটিকুরি এলাকায়। গায়ক হিসেবে তাঁকে চেনেন অনেকেই। পরিচিত মুখ। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, কয়েক বছর আগে টিভিতে এই জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো-তে অংশ নিয়েছিলেন প্রসূন। সেই অনুষ্ঠানের দৌলতেই আরও বেশি পরিচিতি পেয়েছেন তিনি।ভোটের মরশুমে হাওড়া সদর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে একটি গান রেকর্ড করেছেন গায়ক প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। গানটিতে সুর দিয়েছেন অনির্বাণ, কথা লিখেছেন প্রবীর বিশ্বাস। অল্প কয়েক দিনেই সেই গান রীতিমতো জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। দলের প্রার্থীর প্রচারে হাওড়ার বিভিন্ন প্রান্তে গানটি বাজাচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকরা। তৃণমূল প্রার্থীর সমর্থনে অভিনব এই গানটি শোনা যাচ্ছে ইউটিউব-সহ সোশ্যাল মিডিয়ায়।

লোকসভা ভোটের মুখে রাজ্য বিজেপির জন্য থিম সং রেকর্ড করেছিলেন গায়ক-সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। গানে সুর বাবুলেরই, তবে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বিরোধীদের বিভিন্ন স্লোগানকে একত্রিক করে কথা লিখেছেন অমিত চক্রবর্তী নামে একজন। কিন্তু সেই গানটি প্রকাশ্যে আসতে বিতর্কের ঝড় ওঠে। গানের কথা নিয়ে আপত্তি জানিয়ে অভিযোগ জমা পড়ে নির্বাচন কমিশনে। শেষপর্যন্ত বাবুল সুপ্রিয়র গানটি নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে কমিশন। সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, ভোটপ্রচারে তো বটেই, সোশ্যাল মিডিয়ায় গানটি ব্যবহার করা যাবে না। তবে এখনও বিতর্কিত গান বাজিয়েই প্রচারে করছেন আসানসোলের বিদায়ী সাংসদ ও বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়।

দেখুন ভিডিও:

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং