BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বারাকপুরে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত তিন, ‘রেড জোন’-এর পরিস্থিতি উদ্বেগজনকই

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 25, 2020 8:21 pm|    Updated: April 25, 2020 11:10 pm

An Images

ফাইল ফটো

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য, বারাকপুর: ‘রেড জোন’ উত্তর ২৪ পরগনায় বেড়েই চলেছে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ। নতুন করে আরও তিনজন আক্রান্ত হলেন। এঁরা প্রত্যেকেই বারাকপুর মহকুমা এলাকার বাসিন্দা। প্রাক্তন পুলিশকর্মী, নার্সের পাশাপাশি COVID-19 পজিটিভ অশীতিপর এক বাসিন্দাও। দু’জন বারাসতের কদম্বগাছির COVID হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। একজন ভরতি বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে। এঁদের পরিবারের সদস্যদের পাঠানো হয়েছে কোয়ারেন্টাইনে। তবে এ বিষয় স্বাস্থ্য দপ্তর কিছু জানায়নি।

করোনা আক্রান্ত অবসরপ্রাপ্ত ওই পুলিশকর্মী পানিহাটির বাসিন্দা। পুরসভা সূত্রে খবর, ১০ এপ্রিল থেকে জ্বর হয়েছিল ওই প্রৌঢ়ের। স্থানীয় ডাক্তার দেখিয়ে ওষুধ খেয়েছিলেন পাঁচদিন। কিন্তু তাতেও জ্বর কমেনি। পরিবারের লোকেরা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার অনেক চেষ্টা করেন। কিন্তু বাড়ি থেকে হাসপাতাল নিয়ে যাওয়ার জন্য কোনও গাড়ি বা অ্যাম্বুল্যান্স পাননি। শেষমেশ ২৩ এপ্রিল পানিহাটি পুরসভার কর্মীরা খবর পেয়ে তাঁকে পানিহাটি স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেদিন রাত থেকে তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। ওই প্রৌঢ়কে সেদিন রাতে বারাকপুরের COVID হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানে COVID-19 পরীক্ষা করা হয়। শুক্রবার রাতে জানা যায়, তিনি করোনা পজিটিভ। তাঁরপর তাকে কদম্বগাছির COVID হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। স্ত্রী ও শ্যালিকার সঙ্গে একই বাড়িতে থাকতেন ওই প্রৌঢ়। তাঁর স্ত্রী ক্যানসারের রোগী। শ্যালিকাও অসুস্থ। দুজনকেই বারাসতের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে চোর-পুলিশ খেলা, পাড়ার মোড়ের জটলা ভাঙতে আকাশে উড়ল ড্রোন]

একইদিনে বেলঘরিয়ার দেশপ্রিয়নগরের এক নার্সের শরীরেও করোনা ভাইরাসের সন্ধান মিলেছে। তিনি মারোয়ারি হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন। ১৯ এপ্রিল জ্বর আসে তাঁর। পরিবারের সদ্স্যরা তাঁকে ওই হাসপাতাল থেকে বেলেঘাটা আইডি’তে নিয়ে যান। সেখান থেকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় এমআর বাঙ্গুরে। সেখানেও ভরতি না নিয়ে পরে স্থানান্তরিত করা হয় রাজারহাট কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে। সেখানে পরীক্ষার পর রিপোর্টে করোনা পজিটিভ মেলায় ফের আইডি হাসপাতালে ভরতি করানো হয়।

[আরও পড়ুন: করোনা পরিস্থিতি দেখতে বারাসতে ‘সারপ্রাইজ ভিজিট’ কেন্দ্রীয় দলের, জানলেন সমস্ত তথ্য]

শনিবার বারাকপুরের এক বৃদ্ধের রিপোর্টও পজিটিভ এসেছে। অশতিপর ওই বৃদ্ধ শারীরিক সমস্যার কারণে বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি ছিলেন। তিন দিন আগে ছাড়া পান। বাড়ি ফেরার পর থেকেই জ্বর আসে তাঁর। পরিবারের লোকেরা তাকে বিএন বোস হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে বারাকপুরের কোভিড হাসপাতালে রেফার করে দেওয়া হয়। সেখানে পরীক্ষা করে এদিন জানা যায়, তিনি করোনা পজিটিভ। তাঁকে বারাসতের কদম্বগাছির COVID হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement