BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বদলে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী বর্ধমান স্টেশনের নাম, ঘোষণা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: July 21, 2019 7:48 pm|    Updated: July 21, 2019 7:48 pm

Barddhaman Station to rename as Freedom Fighter Batukeshwar Dutta

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: বর্ধমান জংশন স্টেশনের নাম পরিবর্তন করে বিপ্লবী বটুকেশ্বর দত্ত জংশন স্টেশন করা হচ্ছে। শনিবার বিহারের পাটনায় বিপ্লবীর মৃত্যু দিবসের এক অনুষ্ঠানে এসে এমনটাই জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই। রবিবার বিপ্লবী বটুকেশ্বর দত্তর কন্যা ভারতী দত্ত বাগচীর সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, “আমাদের পাটনার বাড়িতে স্বরণসভার আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে মন্ত্রীকে আমরা জানাই দীর্ঘদিন ধরে বর্ধমান স্টেশনের নাম পরিবর্তন করে বটুকেশ্বর দত্তর নামে করার জন্য আমরা আবেদন করছি। সেই ব্যাপারে কিছু করার জন্য তাঁকে অনুরোধ করি। সঙ্গে সঙ্গে তিনি খোঁজ নিয়ে ঘোষণা করেন বর্ধমান স্টেশনের নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই বিষয়ে অর্ডারও করা হয়েছে বলে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ঘোষণা করেন।”

অন্যতম প্রাচীন জনপদ বর্ধমান। কেউ বলেন জৈন তীর্থঙ্কর বর্ধমানের নামানুসারে এখানকার নামকরণ হয়েছে। অন্য মতও রয়েছে। ইতিহাসবিদদের অনেকেই জানান, মহাভারতেও এই জনপদের নাম রয়েছে। রেলের প্রাচীন স্টেশনগুলির অন্যতম এই বর্ধমান জংশন স্টেশন। এবার সেই স্টেশনের নাম পরিবর্তনের তোড়জোড় শুরু হয়েছে। ভারতীদেবী জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ঘোষণা করেছেন এই সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। যদিও এই সংক্রান্ত কোনও নির্দেশিকা এখনও বর্ধমান স্টেশন বা পূর্ব রেলের কাছে আসেনি বলে জানা গিয়েছে। বর্ধমানের খণ্ডঘোষ ব্লকের ওঁয়াড়ি গ্রামে বিপ্লবীর জন্ম হয়। সেখানে বিপ্লবীর জন্মভিটে তাঁর কন্যা রাজ্য সরকারকে দান করেছেন। রাজ্য সরকারের পর্যটন দপ্তরের আর্থিক সহায়তায় জন্মভিটে সংরক্ষণ করা হয়েছে। ভগৎ সিং ও বটুকেশ্বর দত্ত আত্মগোপন করে বেশ কিছুদিন ছিলেন ওঁয়াড়ির জন্মভিটের পাশের একটি বাড়িতে। সেখানে একটি সুড়ঙ্গ পথ ও চোরাকুঠুরি রয়েছে। সেটিও সংরক্ষণ করা হয়েছে। পাশাপাশি, সংগ্রহশালাও গড়া হয়েছে এখানে।

বিপ্লবী বটুকেশ্বর দত্ত স্মৃতিরক্ষা সংগ্রহশালা কমিটিও গড়া হয় জন্মভিটেকে সংরক্ষণ করার জন্য। সম্পাদক মধুসূদন চন্দ্র। তিনি জানান, ২০১২ সালে বিপ্লবী কন্যা ভারতীদেবী, বিপ্লবীর আত্মীয় রবিশঙ্কর গঙ্গোপাধ্যায় ও এই কমিটির তরফে বৈঠক করে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তার প্রথম সিদ্ধান্তটি ছিল বর্ধমান স্টেশনটি বিপ্লবী বটুকেশ্বর দত্তর নামে করার। এই বিষয়ে ভারতীদেবী ও রবিশঙ্করবাবু অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছিলেন। সংশ্লিষ্ট দপ্তরে বারবার চিঠি পাঠানো থেকে শুরু করে বারবার তদ্বির করার কাজটি তাঁরা করছিলেন। মধুসূদনবাবু জানান, রবিবার সকালে তিনি খবরটি পেয়েছেন। তার পর ভারতীদেবীর সঙ্গে কথাও হয়েছে তাঁরা। শনিবার বিপ্লবীর স্মরণসভায় বর্ধমান স্টেশনের নাম পরিবর্তনের বিষয়টি ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে